হাওরে ‘অলওয়েদার’ সড়কের নির্মাণ কাজ পদির্শন করলেন রাষ্ট্রপতি

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
এপ্রিল ১১, ২০১৫ ৫:৫৩ অপরাহ্ণ

Abdul-Hamid
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ বলেছেন, সারা জীবন আমি রাজনীতি করেছি অবহেলিত ভাটি-বাংলার মানুষের উন্নয়নের জন্য। একুশ বছর বিরোধীদলে ছিলাম বলে হাওরে কাঙ্খিত উন্নয়ন করতে পারিনি।
এখন সে উন্নয়নের ধারা সূচনা হয়েছে আরও উন্নয়ন হবে। অবহেলিত পশ্চাদপদ ভাটি এলাকার মানুষকে খুব শিঘ্র মূল ভূখন্ডের সাথে সড়ক পথে যোগাযোগের সুযোগ করে দেয়া হবে।

গতকাল বিকেলে কিশোরগঞ্জের ইটনায় সড়ক ও জনপদ বিভাগের উদ্যোগ ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রামকে সংযুক্ত করে অলওয়েদার রোড (সারা বছর চলাচল উপযোগী পাকা সড়ক) নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন রাষ্ট্রপতি।

ইটনা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মো. আবুল হোসেন, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব মো. শফিকুল ইসলাম ভূইয়া, সড়ক ও জনপদ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সাহাব উদ্দিন খান প্রমূখ।
এ ছাড়া কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক এস এম আলম, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান, জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর এড. শাহ আজিজুল হকসহ উর্ধতন সরকারি কর্মকর্তা ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা এ সময় এ সশয় উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিকেল সাড়ে ৪টায় নিজের উপজেলা মিঠামইনের উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারে করে যাত্রা করেন, রাষ্ট্রপতি। এর আগে চার দিনের সফরে বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে তিনটায় তিনি ইটনায় এসে পৌঁছান।

গত রাতে মিঠামইনে সরকারি কর্মকর্তা ও এলাকার গণ্যমান্য লোকজনের সাথে মতবিনিময় শেষে কামাল পুরের অবস্থিত নিজের বাড়িতে রাতযাপন করেন তিনি। আগামীকাল ১১ এপ্রিল বিকেল ৩টায় মিঠামইন থেকে কিশোরগঞ্জ জেলা সদরে আসবেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া