বাজিতপুরে বইপড়া উৎসবে একসাথে মুক্তিযুদ্ধের গল্প পড়ল পাঁচ হাজার শিক্ষার্থী

মো. আরিফুল ইসলাম, বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি।।

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে বইপড়া উৎসবে একসাথে বই পড়েছে মাধ্যমিক পড়ুয়া পাঁচ হাজার শিক্ষার্থী। ২১ জানুয়ারি শনিবার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পৌরশহরের নাজিম ভূঁইয়া মাঠে দেশের সবচেয়ে বড় বইপড়া উৎসবটি অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ১১টা ২০ মিনিট থেকে শুরু হওয়া এক ঘণ্টাব্যাপী বইপড়া উৎসবে ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণিপড়ুয়া পাঁচ হাজার শিক্ষার্থী একই খোলা মাঠে অবস্থান করে তাদের নিজ নিজ পাঠ্যবই থেকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রবন্ধ পড়ে। বিশাল এ আয়োজনে এক হাজার ৫০০টি বেঞ্চ ব্যবহার করা হয়েছে।

পজেটিভ বাজিতপুর গড়ার উদ্দ্যেশে বই পড়ার অভ্যাস প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আয়োজিত বিশাল এ বইপড়া উৎসবে কিশোরগঞ্জ জেলার জেলা প্রশাসক আজিমুদ্দিন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ হেলালুদ্দীন আহমদ।

এছাড়াও বিশেষ অতিথির আসন গ্রহণ করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সারোয়ার আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পি ও পৌর মেয়র আনোয়ার হোসেন আশরাফ।এর আগে প্রধান অতিথি হেলালুদ্দীন আহমদ জেলা প্রশাসক আজিমুদ্দিন বিশ্বাসসহ অতিথিদের সাথে নিয়ে পতাকা, বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে বইপড়া উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। পরে ঘণ্টাব্যাপী বইপড়া উৎসবেশিক্ষার্থীদের বইপড়া শেষে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন অতিথিবৃন্দ।

গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে সংবাদ সম্মেলনে বিশাল এ আয়োজনের স্বপ্নদ্রষ্টা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পি জানান, বর্তমান সময়ে শিক্ষার্থীরা ফেসবুক ও ইউটিউবে হারিয়ে যাচ্ছে। ফলে বই পড়ার অভ্যাস তাদের কমে যাচ্ছে। সারাদেশে বছরের প্রথম দিন যেমন বই বিতরণ উৎসব পালন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় যদি বছরে কোনো একদিন বইপড়া দিবস পালন করা হয়,তাহলে বই পড়ার প্রতি শিক্ষার্থীদের আগ্রহ ও অভ্যাস বাড়বে। দেশের বিশাল এ বইপড়া উৎসবে প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,শিক্ষক-শিক্ষিকা ছাড়াও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/২১-০১-২০১৭ইং/ অর্থ 

Comments

comments

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.