তাড়াইলের বাকীতে সিগারেট না দেওয়ায় মোদী ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা

শফিক কবীর, স্টাফ রিপোর্টার : 

কিশোরগঞ্জের তাড়াইলের বাকীতে সিগারেট না দেওয়ায় এক মোদী ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে থানায় মামলা করায় বিপাকে পড়েছে বাদী। আসামীরা মামলা উঠিয়ে নিতে অনবরত হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন নিহতের ছেলে আ.রাজ্জাক।

মামলার বিবরণ, পরিবার ও এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পিছনের গেটে সাচাইল গ্রামের জাহেদ আলী দীর্ঘ বছর যাবত মোদী ব্যবসা করে আসছিলেন। একই এলাকার মৃত আজিজুল হক আকন্দের পুত্র জাইদুল হক গংদের সাথে পুর্ব বিরোধ চলে আসছিল। গত ২৬ জানুয়ারি সকালে জাহেদ আলী দোকানে বসে থাকাবস্থায় জাইদুল পক্ষের অলি নামে এক লোক জাহিদের দোকানে বাকিতে সিগারেট খেতে চাইলে তিনি সিগারেট দিতে অস্বীকার করায় কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে জাইদুলের নেতৃত্বে একদল সন্তাসী জাহিদ আলীকে বেদম প্রহার করে গুরুতর আহত করে।

পরে স্থানীয় এলাকাবাসী তাদের কবল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানেও গিয়ে জাইদুলের লোকজন নানা হুমকি দেয়। পরে রোগীকে বাড়িতে নিয়ে যায় স্বজনরা। দুপুরে রোগীর অবস্থা অবনতি হতে থাকলে আবার হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরক চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এ ঘটনায় মৃত জাহেদ আলীর পুত্র আ.রাজ্জাক বাদী হয়ে তাড়াইল থানায় একটি মামলা ( নং ১৬ তাং ২৭.১.১৭ ইং) দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর তাকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে বলে বাদী জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে তাড়াইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার শওকত জাহান শনিবার দুপুরে বলেন, এঘটনায় তাড়াইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন আসামীকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি বলে তিনি জানান।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৪-ফেব্রুয়ারি-২০১৭ইং/নোমান

Leave A Reply

Your email address will not be published.