ভারত ভ্রমণে মুক্তিযোদ্ধারা খুব শিগগিরই পাবেন পাঁচ বছরের মাল্টিপল ভিসা

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ রিপোর্টঃ 

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ভিসাপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে নতুন সুবিধা চালু করছে ভারত। ভারত ভ্রমণে ভিসার জন্য আবেদনকারী মুক্তিযোদ্ধারা খুব শিগগিরই পাবেন পাঁচ বছরের মাল্টিপল ভ্রমণ ভিসা।

মঙ্গলবার ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে ভারতের বিশেষ সংযোগের স্বীকৃতি হিসেবে এই বিধান একটি বিশেষ সৌজন্য হিসেবে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বর্ধিত করা হয়েছে।

যাদের বয়স ৬৫ বছরের বেশি তারা এখনই পাঁচ বছরের ভিসা পাচ্ছেন। নতুন নিয়মে সব বয়সি মুক্তিযোদ্ধা এ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হচ্ছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর পরবর্তী সময়ে দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো এগিয়ে নিতে এ নতুন পদক্ষেপ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

৫ বছরের ভ্রমণ ভিসা পেতে ইচ্ছুক মুক্তিযোদ্ধারা অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই ভ্রমণ ভিসা আবেদনপত্র ঢাকার গুলশান আইভিএসি এবং ঢাকার বাইরে আটটি (চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট, বরিশাল, খুলনা, যশোর, ময়মনসিংহ ও রংপুর) আইভিএসিতে সরাসরি জমা দিতে পারবেন।

মুক্তিযোদ্ধা প্রমাণপত্র: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ইস্যু করা মূল মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট বা মুক্তিযোদ্ধা সনদ (জমা দেওয়ার সময় আইভিএসিতে দেখাতে হবে) এবং এর ফটোকপি আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযোজন করতে হবে।

ছবি শনাক্তকরণ: এক কপি ফটো আইডি/জাতীয় পরিচয়পত্র আবেদনপত্রের সঙ্গে থাকা বাধ্যতামূলক। এ ছাড়া ভ্রমণ ভিসার জন্য অন্য শর্তাবলী অপরিবর্তিত থাকবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক পর্যায়ে শুধু গুলশান ভিসা কেন্দ্রে পাইলট প্রকল্প হিসেবে আলাদা কাউন্টার থাকবে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য। অনলাইনে ভিসা ফরম পূরণ যেহেতু খুব সহজ নয়, সেজন্য ভিসা কেন্দ্রে বয়স্ক মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তার জন্য থাকবে বিশেষ হেল্প ডেস্ক।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/২৫-০৪-২০১৭ইং/ অর্থ 

Comments

comments

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ