দারুচিনি কমাবে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি!

স্বাস্থ্য ডেস্ক :

ডায়াবেটিস রোগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে দারচিনির কোনও বিকল্প নেই। কারণ এই মশলাটিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপাদান ইনসুলিন রেজিসটেন্সের মাত্রাকে কমিয়ে অল্প দিনেই রক্তে উপস্থিত শর্করার মাত্রাকে একেবারে স্বাভাবিক লেভেলে নিয়ে আসে। ফলে ডায়াবেটিস এবং সেই সম্পর্কিত নানাবিধ লক্ষণ একেবারে কমে যায়।
শধু তাই নয়, সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়েছে, টানা ৪০ দিন হাফ চামচ করে দারচিনির পাউডার খেলে, শরীরের বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা প্রায় ১৮ শতাংশ কমে যায়। আর সুগারের মাত্রা কমে প্রায় ২৫ শতাংশ।

এই ঘরোয়া ওষুধটি বানাতে যে যে উপকরণগুলি লাগবে:

১. জল- ৫০০ এম এল
২. ওটস- হাফ চামচ
৩.দারচিনি পাউডার- ২ চামচ

ওষুধটি বানানোর পদ্ধতিঃ

একটা বাটিতে সবকটি উপকরণ মিশিয়ে একটা মিশ্রন বানিয়ে ফেলুন। এই ঘরোয়া ওষুধটি সকালে একবার আর বিকালে একবার খেতে হবে।

কীভাবে এই ওষুধটি কাজে লাগেঃ

এই ঘরোয়া ওষুধটি শুধু ডায়াবেটিসের প্রকোপ কমায় না। সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটিয়ে একাধিক রোগকেও দূরে রাখে। তাই যাদের ডায়াবেটিস নেই, তারাও সুস্থ থাকতে ইচ্ছা হলে এই ওষুধটি খেতে পারেন।

কোলেস্টেরল কমায়ঃ দারচিনিতে রয়েছে মিথেল-হাইড্রোক্সিকেলকন নামে একটি উপাদান, যা রক্তে সুগারের মাত্রাকে কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এই মশলাটিতে উপস্থিত একাধিক কার্যকরি উপাদান রক্তেমালীতে জমে থাকা কোলেস্টেরলদের ধুয়ে বার করে দেয়। শুধু তাই নয়, শরীরে যাতে বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা নতুন করে না বাড়ে সেদিকেও খেয়াল রাখে। তাই তো কোলেস্টেরল রোগীদের প্রতিদিন এই ঘরোয়া ওষুধটি খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/৩০-এপ্রিল-২০১৭ইং/নোমান

Leave A Reply

Your email address will not be published.