দিনাজপুরে এম, এ পাশ আজিজুল নার্সারি ব্যাবসায় সাবলম্বি

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
মে ২, ২০১৭ ৮:২০ অপরাহ্ণ

একরামুল হক, ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দেশকে সবুজ করার প্রত্যয়,গাছের প্রতি অঘাত ভালবাসা ও বেকারত্বের করুন পরিনতি থেকে মুক্তির জন্য নার্সারী গড়ে তুলেছেন দিনাজপুরের আজিজুল হক।তিনি বগুড়ার একটি সরকারী কলেজ থেকে মাস্টার্স পাশ করার পর তিনি চাকুরির পিছনে না ঘুরে এবং কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে নার্সারি ব্যাবসাকে বেছে নেন।তিনি ছোট বেলা থেকেই গাছের প্রতি আগ্রহী হওয়ায় এ পেশা গ্রহন করেন।এই সফল বৃক্ষপ্রেমী দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার উদয়ধুল গ্রামের সন্তান। যৌবনের শক্তি,সাহস ও উদ্যোম কে কাজে লাগিয়ে গুটি গুটি অব্যাহত পরিশ্রমে নার্সারী করে জীবনের গতি পাল্টিয়ে দিয়েছেন তিনি।পরিবেশের উপর গাছের প্রভাবের কথা ভেবে প্রথমে ফলের গাছ দিয়েই নার্সারীর হাতেখড়ি তার।সময়ের সাথে নিজের প্রয়োজনে কলম চারা শিখে নেন।পরবর্তীতে ফুল ও ফলের চারা লাগিয়ে ব্যাপক লাভবান হয়েছেন।নার্সারী বিষয়ে তার সাথে কথা বলে জানা যায় প্রতিদিন ৩-৪ জন শ্রমিক কাজ করেন তার বাগানে।এখানে ৩০ প্রজাতির আমের চারা সহ বেস কিছু ফলের চারা রয়েছে । ২০ প্রজাতির ফুলের চারা রয়েছে।এছাড়া রয়েছে ভেষজ ও ঔষধী গাছের চারা। গাছের প্রতি মায়ায় ও বানিজ্যিক লাভের উদ্দ্যেশে বিভিন্ন জেলা,শহর থেকে নানা প্রজাতির চারা সংগ্রহ করেছেন তিনি।এখন গাছের চারা বিক্রি করে লাভবান হয়েছেন বলে সে দিনের কিছু স্মৃতিচারন করে আজিজুল বলেন সরকারের সহায়তা পেলে নার্সারি কে আরো? উন্নত করা যাবে বলে মনে করেন। তার দাবি সবিজ নিঃশ্বাস ও নির্মল বাতাসের জন্য সবুজ প্রকৃতির বিকল্প নেই, তাই পরিবেশের স্বার্থে সবাইকে গাছ লাগার আহ্বান জানান এই বৃক্ষ প্রেমি।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০২-০৫-২০১৭ইং/ অর্থ 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া