সফলতার গল্প - মে ২, ২০১৭

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আয়শার সংগ্রামী জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

উল্লাপাড়া পৌরসভার নেওয়ারগাছা প্রামের আয়নাল হকের মেয়ে আয়শা খাতুন, ছোট বেলাতে অপুষ্টি জনিত কারনে অন্ধত্ব বরন করে। পরিপাটি আয়শা আপাকে দেখলে হঠাৎ কেউ বলতে পারবে না যে তিনি সম্পুর্ন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী। আয়শার আপার বিবাহ হলেও শশুর বাড়িতে তার স্থান না হওয়ায় বাবার বাড়িতে আয়শা এককোনে ছোট একটি চালা ঘর করে থাকেন। তার স্বামী তাতের কাজ করে। আয়শা কিন্তু বসে থাকার পাত্রি নন। তার কথ তিনি কাজ করে খাবেন। তাই বাড়িতে চরকাতে সুতা তোলার কাজ করেন। এক সুন্দর ও নিখুত ভাবে সুতা তোলে আয়শা, সত্যিই আচর্য্য। এই কাজে সারা দিন করলেও পারিশ্রমিক কিন্তু বেশী নয়। মাত্র 50/60টাকা। তাও আয়শা সুখী যে সে নিজে কিছু করতে পারছে। তার সখ একটা গরু পালনের। আমার বিশ্বাস হয়তো একদিন এই আশাও পুরন হবে। হয়তো কোন পরশ পাথর আয়শার সেই আশা পুরন করবে।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০২-০৫-২০১৭ইং/ অর্থ 


আরও পড়ুন

1 Comment

Comments are closed.