দেশের খবর - মে ১৩, ২০১৭

নান্দাইলে ১টি অসহায় পরিবারকে সৃজন মামলায় জড়িয়ে হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, নান্দাইল (ময়মনসিংহ): 

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের ধুরুয়া গ্রামের একটি অসহায় দরিদ্র পরিবারকে চামারুল্লাহ গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের পুত্র মোঃ ফরিদ মিয়া কর্তৃক নান্দাইল মডেল থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করে একটি পরিবারকে হয়ারানি করা হচ্ছে বলে শনিবার (১৩ই মে) নান্দাইল প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অভিযোগ করা হয়েছে। ধুরুয়া গ্রামের শরীফ মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ খায়রুন্নাহার সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানান চামারুল্লাহ গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের পুত্র ফরিদ মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। গত ২৭ এপ্রিল ৪নং চন্ডীপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ এমদাদুল হক উভয় পক্ষকে লিখিত নোটিশ এর মাধ্যমে দরবারে উপস্থিত হওয়ার আহ্বান জানালেও ফরিদ মিয়া গং দরবারে উপস্থিত না হয়ে গত ২৯ এপ্রিল নান্দাইল মডেল থানায় তার স্ত্রী লিপা আক্তার (৩০)কে ঘুমন্ত অবস্থায় ভোরবেলায় আমার স্বামী সহ ৪ জনে এসিড নিক্ষেপ করেছে এই মর্মে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানী করে যাচ্ছে। মামলা নং ৩০ (৪)২০১৭ পুলিশ উক্ত মামলায় আমার স্বামী শরীফ মিয়াকে গ্রেফতার করে জেল-হাজতে প্রেরন করেছে। ফরিদ মিয়া উক্ত মামলাটি নিজে সৃজন করে আমাদেরকে হয়রানী করার জন্য এই মামলা দায়ের করে। মামলায় শরীফ মিয়া, রমজান মিয়া, মাসুম মিয়া, নাজিম উদ্দিনকে আসামী করা হয়েছে। অথচ ঘটনার দিন তারা এলাকায় ছিলনা এবং এসিড নিক্ষেপের কোন ঘটনাই ঘটে নাই। সংবাদ সম্মেলনে খায়রুন্নাহার অধিকতর তদন্তের মাধ্যমে এই মিথ্যা মামলার দায় থেকে তাঁর স্বামী শরীফ মিয়া সহ সকল আসামীদের অব্যাহতি দিয়ে মামলাটির ফাইনাল রিপোর্ট প্রদান করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানিয়েছেন।

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/১৩-০৫-২০১৭ইং/ অর্থ 


আরও পড়ুন