বাজিতপুরে অর্থের লোভে বন্ধুকে হত্যার অভিযোগ, আটক ১

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ ।।

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে অর্থের লোভ সামলাতে না পেরে ওমর চাঁন সাচ্চু (৩৫) নামের এক জুতা ব্যবসায়ীকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।২৬ জুন সোমবার (ঈদের দিন) ভোর রাতে পৌরশহরের বসন্তপুর এলাকার আমিনুল ইসলাম সুজনের ভাড়াটিয়া ওমর চাঁন সাচ্চু মিয়া হামলার শিকার হন।

ওমর চাঁন সাচ্চু মিয়া উপজেলার বলিয়ার্দী ইউনিয়নের মধ্য শিমুলতলা গ্রামের হাজী আবদুল জব্বারের ছেলে।

পরিবার সূত্র জানায়, ওমর চাঁন সাচ্চু মিয়ার সঙ্গে তার বন্ধু শফিক মিয়ার দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্ক ছিল।সোমবার গভীর রাতে শফিক মিয়া অর্থের লোভের কারণে ওমর চাঁন সাচ্চুর শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে ১৩ থেকে ১৪টি জায়গায় জখম করে।আশষ্কাজনক অবস্হায় প্রথমে তাকে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে উন্নত চিকিত্‍সার জন্য রাজধানীর হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে নিয়ে গেলে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে চিকিত্‍সাধীন অবস্হাধীন তার মৃত্যু হয়।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ শুক্রবার বিকালে জানাযার নামাজ শেষে বলিয়ার্দী কবরস্হানে দাফন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই জামাল উদ্দিনের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ঘণিষ্ট বন্ধু উপজেলার হিলচিয়া ইউনিয়নের লৌহগাঁও গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে শফিক মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত ওমর চাঁন সাচ্চু মিয়ার বড় ভাই লায়েছ মিয়া জানান,তিনি হজ্বে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।তাঁর হজ্বে যাওয়ার সুযোগে শফিক মিয়া তার ভাই সাচ্চু মিয়াকে হত্যা করে অন্যের ওপর এই হত্যার দায় চাপিয়ে পরিবারের বিশ্বাস অর্জন করতে চেয়েছিল।

এ ব্যাপারে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বাজিতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু শামা মোহাম্মদ ইকবাল হায়াত মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠকে জানান,হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে আটককৃত শফিক মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/৩০-০৬-২০১৭ইং/ অর্থ 

Leave A Reply

Your email address will not be published.