নিকলী ও ভৈরবে উপ-নির্বাচন : আওয়ামী লীগের জয়

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ ।।

কিশোরগঞ্জের নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদ ও ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত দুই প্রার্থী বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। ১৩ জুলাই বৃহস্পতিবার শূন্যপদে অনুষ্ঠেয় উপ-নির্বাচনে নিকলী সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে কারার শাহরিয়ার আহম্মেদ তুলিপ ও ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে সরকার মোহাম্মদ শাফায়েত উল্লাহ নির্বাচিত হন।

শাহরিয়ার আহম্মেদ তুলিপ ও সরকার মো. শাফায়েত উল্লাহ

নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত কারার শাহরিয়ার আহম্মেদ তুলিপ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮ হাজার ৬২০ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দী বিত্রনপি মনোনীত ডা.কফিল উদ্দিন আহম্মেদ ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ১৩৯ ভোট।

অন্যদিকে ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী সরকার মোহাম্মদ শাফায়েত উল্লাহ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ২০২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী স্বতন্ত্র প্রার্থী তোফাজ্জল হক মটর সাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৯৭ ভোট।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে দুই ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিকাল ৪টায় শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়। নির্বাচনকে ঘিরে পুলিশ, র্যাব, বিজিবির সমন্বয়ে নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়।

উল্লেখ্য চলতি বছরের ১৯শে মে নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কারার বুরহান উদ্দিনের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হলে ৪ঠা জুন উপজেলা নির্বাচন অফিস শূন্য পদটিতে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। এতে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে সদ্য প্রয়াত চেয়ারম্যান কারার বুরহান উদ্দিনের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কারার শাহরিয়ার আহম্মেদ তুলিপ ও বিত্রনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকে উপজেলা বিত্রনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ডা.কফিল উদ্দিন আহম্মেদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

অন্যদিকে ১১ মার্চ ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বকর ছিদ্দিকের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়। নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে সদ্য প্রয়াত চেয়ারম্যান আবু বকর ছিদ্দিকের ছেলে সরকার মোহাম্মদ শাফায়েত উল্লাহ ছাড়াও মোটর সাইকেল প্রতীকে তোফাজ্জল হক ও আনারস প্রতীকে শেখ জামির উদ্দিন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১৩জুলাই২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ