৫২.৬০ কোটি ডলার দেবে এডিবি

অর্থনৈতিক রিপোর্ট :

নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও অবকাঠামো উন্নয়নে বাংলাদেশকে ৫২ কোটি ৬০ লাখ ডলারের ঋণ দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় চার হাজার ২৫০ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার এডিবির বোর্ড সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়। সংস্থার ওয়েবসাইটে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপি) ভিত্তিতে চলমান অবকাঠামো প্রকল্প ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি বা সৌরবিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়নে এই অর্থ ব্যয় হবে। এই অর্থের মধ্যে পিপিপির আওতায় মধ্যম ও বড় ধরনের প্রকল্পে ৫০ কোটি ডলার ব্যয় হবে।

আর দুই কোটি ৬০ লাখ ডলার ব্যয় হবে ক্ষুদ্র ও মাঝারি আকারের নবায়নযোগ্য জ্বালানি সহায়তায়। দেশের গ্রামাঞ্চলে এসব জ্বালানি প্ল্যান্ট হবে। এ ছাড়া সাত লাখ ৫০ হাজার ডলার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান ইনফ্রাস্ট্রাকচার কোম্পানি লিমিটেডের (ইডকল) সক্ষমতা বৃদ্ধিতে ব্যয় করা হবে।

এডিবির প্রধান আর্থিক খাত বিশেষজ্ঞ পিটার মারো বলেন, ‘বাংলাদেশের দ্রুত প্রবৃদ্ধিতে বেসরকারিভাবে অবকাঠামো উন্নয়ন গুরুত্বপূর্ণ। এই উন্নয়নকে এখন টেকসই করা প্রয়োজন। কেননা, অবকাঠামো উন্নয়নে বাংলাদেশের দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি বজায় রাখার জন্য অবকাঠামোগত উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের প্রয়োজন হবে। যেগুলো বেসরকারি খাত পূরণ করতে পারে।

এ সংক্রান্ত এক সংবাদ বিবৃতিতে এডিবি বলছে, বাংলাদেশ ২০১১ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে ৬.৩ শতাংশে স্থিতিশীল গড় প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে, যা জুলাই ২০১৫ সালে নিম্ন-মধ্যম আয়ের অবস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। তবে কাঙ্ক্ষিত উন্নয়নে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) বৃদ্ধি ৭ শতাংশ থেকে গড় ৭.৪ শতাংশে পৌঁছাতে হবে। এ ছাড়া বাংলাদেশকে উচ্চ-মধ্যম আয়ের স্তরের দিকে অগ্রসর হওয়ার জন্য পাঁচ বছরের পরিকল্পনার আওতায় এই লক্ষ্যগুলোকে পাবলিক এবং প্রাইভেট বিনিয়োগের ক্ষেত্রে জিডিপি ২০১২ সালের ২৯ শতাংশ থেকে বেড়ে ২০২০ সালের মধ্যে ৩৪.৪ শতাংশ হওয়ার প্রয়োজন হবে। এ জন্য শুধু অবকাঠামোতে বছরে জিডিপি ৫ শতাংশ থেকে ৬ শতাংশ করতে হবে। যা অর্থের আকারে ৯ বিলিয়ন ডলার থেকে ১০ বিলিয়ন ডলার।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১৯-জুলাই-২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.