তোতা পাখির সাক্ষ্যে স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রীর কারাদণ্ড!

রকমারি রিপোর্ট :

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে তোতা পাখির সাক্ষ্যে স্বামীকে হত্যায় দণ্ড হয়েছে এক স্ত্রীর। গেলেনা ডুরাম ২০১৫ সালে তার স্বামী মার্টিনকে ওই পাখিটির সামনে গুলি করে হত্যা করেছিলেন।

পরে তিনি একই বন্দুকের গুলিতে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন কিন্তু ব্যর্থ হন। তোতা পাখিটি আফ্রিকান প্রজাতির। তার নাম ‘বাড’।

যখন গেলেনা তার স্বামী মার্টিনকে গুলি করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন মার্টিন চিৎকার করে বলেছিলেন ‘ডোন্ট শুট’। সেই কথাটি তোতা পাখিটি হত্যাকাণ্ডের রাতে পুনরাবৃত্তি করতে পেরেছিল। এ কারণে সাক্ষী হিসেবে আদালত তা গ্রহণ করেছে বলে জানান মার্টিনের সাবেক স্ত্রী ক্রিশ্চিয়ানা কেলার।

৪৯ বছর বয়সী ডুরাম স্বামীকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টায় গুরুতর আহত হলেও তিনি বেঁচে যান।

মার্টিনের মা লিলিয়ান বলেন, এটা ছিল নির্দয় হত্যাকাণ্ড। দুই বছর পর সুবিচার পাওয়া গেল। মামলার প্রসিকিউটর অবশেষে তোতা পাখির কণ্ঠকে ট্রায়ালে প্রমাণ হিসেবে গ্রহণ করেন, তখন অবশ্য দুই বছর পার হয়ে গেছে। তা না হলে মামলা অনেক আগেই ডিসমিস হয়ে যেত।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২১-জুলাই২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ