সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে

অর্থনৈতিক রিপোর্ট :

টানা তিন কার্যদিবস উত্থানের পর মূল্য সূচকের পতনের মাধ্যমে চলতি সপ্তাহের পঞ্চম ও শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন শেষ হয়েছে। তবে উভয় বাজারে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় কমেছে ৯ পয়েন্ট। আর লেনদেন বেড়েছে ৭৪ কোটি ২ লাখ টাকা। অপর বাজার সিএসইতে সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স কমেছে ১ পয়েন্ট এবং লেনদেন বেড়েছে ১৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত কয়েকদিনের মতো বৃহস্পতিবারও মূল্য সূচকের বড় উত্থানের মাধ্যমে লেনদেন শুরু হয়। লেনদেনের প্রথম ২৫ মিনিটেই ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩২ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

তবে বেলা ১১টার পর থেকে নিম্নমুখী হতে থাকে ডিএসইএক্স সূচক। লেনদেনের শেষ পর্যন্ত সূচকের এ নিম্নমুখীতা অব্যাহত থাকে। ফলে সূচক ঋণাত্মক থেকেই লেনদেন শেষ হয়। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৯ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৮১৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

প্রধান মূল্য সূচকের পাশাপাশি কমেছে ডিএসই-৩০ সূচক। এ সূচকটি আগের দিনের তুলনায় ২ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ১২৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। তবে কিছুটা বেড়েছে ডিএসই শরিয়াহ সূচক। এই সূচকটি দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩১৭ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭১২ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৬৩৮ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ৭৪ কোটি ২ লাখ টাকা। বাজারটিতে লেনদেন হওয়া ১১৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে দাম কমেছ ১৬৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টির দাম।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৩২ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা গ্রামীণ ফোনের ২৭ কোটি ৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- আইডিএলসি, প্রিমিয়ার ব্যাংক, জাহিন স্পিনিং, সিটি ব্যাংক, আইএফআইসি, ফরচুন সুজ এবং কেয়া কসমেটিক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসসিএক্স সূচক ১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৯০৪ পয়েন্টে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি ৮২ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৩৮ কোটি ২ লাখ টাকা।

বৃহস্পতিবার সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৬৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ৯৯টির দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে দাম কমেছে ১৩৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির দাম।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২৭-জুলাই২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ