ভৈরবে ট্রেন-বাস সংঘর্ষ, আহত ৩৬

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ ।।

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ট্রেন-বাস সংঘর্ষে অন্তত ৩৬ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। ৪ আগষ্ট শুক্রবার (আজ) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার ভৈরব-ময়মনসিংহ মহাসড়কের শম্ভুপুর রেলক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা ২৪২ নং লোকাল ট্রেনটি ভৈরব যাচ্ছিল। পথে শম্ভুপুর রেলক্রসিং এলাকায় ঢাকা-তাড়াইলগামী ঈশাখাঁ পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস রেলক্রসিংয়ে ওঠার পরপরই ট্রেনটি বাসটিকে ধাক্কা দিলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্হলে গিয়ে স্হানীয় লোকজনের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্হা আশষ্কাজনক।

দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দিলরুবা আহমেদ প্রথমে ঘটনাস্হলে গিয়ে উদ্ধার কাজ তদারকি করেছেন। পরে উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে জরুরি বিভাগে অবস্হান করা যাত্রীদের চিকিৎসা ব্যবস্হা দেখাশোনা করেন। এ সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আহতদের চিকিৎসাসহ অন্যান্য সহায়তার প্রদানের আশ্বাস দেন।

এদিকে দুর্ঘটনার ফলে মহাসড়কের প্রায় ২ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। দুর্ঘটনাস্হল থেকে উভয় পাশে প্রায় ২ কিলোমিটার ব্যাপী দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। দুর্ঘটনা তদন্তে রেলওয়ে ময়মনসিংহ জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টরকে প্রধান করে ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভৈরব হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুল হক মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠকে জানান, রেলক্রসিংয়ে দায়িত্বরত গেইটম্যানের গাফিলতির কারণে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৪-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ