অন্যায় করলে ন্যায়বিচার পাবেন কীভাবে : ফখরুলকে কাদের

রাজনৈতিক রিপোর্ট :

দুর্নীতির দুই মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার ন্যায়বিচার পাওয়া নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সংশয়ের জবাব দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, অন্যায় করলে ন্যায়বিচার কীভাবে পাবেন খালেদা জিয়া।

রবিবার হোটেল সোনারগাঁওয়ে মেট্টোরেল প্রকল্পের ‘ম্যাসর‌্যাপিড ট্রানজিট (এমআরটি) লাইন-৬ কন্ট্র্যাক্ট প্যাকেজ-০৮’ এর চুক্তি সই অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

গতকাল শনিবার বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর শঙ্কা প্রকাশ করেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার ন্যায়বিচার পাওয়া নিয়ে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের সাম্প্রতিক এক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ফখরুল বলেন,

‘একটি বিচারাধীন বিষয় নিয়ে তিনি (দুদক চেয়ারম্যান) যেভাবে কথা বলছেন, সেটি তিনি করতে পারেন না।…দুদক চেয়ারম্যান যে বক্তব্য দিয়েছেন এটা শুধু দুর্ভাগ্যজনক নয়। তার এই বক্তব্য সরকারের বক্তব্য। প্রমাণ হয়, দুদক সরকারের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। যত দূর মনে হয় এক-এগারোর সময়ের দুদকের চেয়ারম্যানও এমন বক্তব্য দেননি।’

মির্জা ফখরুলের এই বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বাংলাদেশে বিচার বিভাগ এখন স্বাধীনভাবে কাজ করছে। বেগম জিয়ার ন্যায়বিচার হবে কি হবে না এ নিয়ে অহেতুক সন্দেহ কেন? কারণটা কি? এখন আপনি অন্যায় করলে ন্যায়বিচার পাবেন কেমন করে।’

সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার এবং ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসা আওয়ামী লীগ সরকারের শুরুর দিকে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা হয়। মামলা দুটিতে খালেদাজিয়াসহ আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থন চলছে। মামলাটির শুনানি দ্রুত শেষ হয়ে রায় দেয়া হতে পারে।

বিএনপি নেতারা একাধিকবার বলেছেন, খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে আগামী নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করতে চায় সরকার। তবে সরকার বলছে, আদালত রায় দেবে যুক্তিতর্ক শুনে। এখানে সরকারের কিছু করার নেই।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৬-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ