প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ার খবর প্রত্যাখ্যান পেন্সের

Muktijoddhar Kantho , Muktijoddhar Kantho
আগস্ট ৭, ২০১৭ ১২:১২ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট :

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে গণমাধ্যমে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে, তা প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি।

এ খবরকে ‘অস্বস্তিকর ও আক্রমণাত্মক’ বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক খবরে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হয়তো আবার এ পদে নির্বাচন করবেন না- এমন অনুমান থেকে কিছু রিপাবলিকান পেন্সের পক্ষে ‘ছায়া ক্যাম্পেইন’ শুরু করেছেন।

অনেকগুলো সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যদি না দাঁড়ান, তবে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে আপত্তি নেই পেন্সের।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে সোমবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স দাবি করেছেন, নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রস্তুতি নেওয়ার খবর প্রশাসনে বিভক্তি সৃষ্টির অপচেষ্টামাত্র। তবে নিউ ইয়র্ক টাইমসে বলা হয়, গত বছর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প টিম ও রাশিয়ার মধ্যে আঁতাত নিয়ে হোয়াইট হাউসের বিপর্যস্ত অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে কিছু রিপাবলিকান শিগগিরই নতুন প্রশাসন বিষয়ে অগ্রসর হচ্ছেন।

খবরে বরা হয়, মাইক পেন্স ‘ক্ষমতার স্বাধীন ভিত্তি’ তৈরি করেছেন এবং রাজনৈতিক তহবিল-গঠনে একটি গোষ্ঠী ঠিক করেছেন। কিন্তু এক বিবৃতিতে পেন্স দাবি করেছেন, ‘এই খবর সুনিশ্চিতভাবে মিথ্যা।’

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমাদের চলার পথে যত মিথ্যা খবরই আসুক না কেন, আমার পুরো টিম প্রেসিডেন্টের পরিকল্পনামতো কাজ এগিয়ে নিতে সচেষ্ট থাকবে এবং ২০২০ সালে তাকে আমরা পুনর্নির্বাচিত দেখতে চাই।’

হোয়াইট হাউসের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা কেলিয়ান কনওয়ে খরবটি প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, ‘এটি পুরোপুরি কল্পকাহিনি।’ এবিসি নিউজের দিজ উইক অনুষ্ঠানে কনওয়ে আরো বলেন, ‘এটি একেবারে সত্য যে, ভাইস প্রেসিডেন্ট ২০২০ সালের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তবে তা ভাইস প্রেসিডেন্ট পদেই পুনর্নির্বাচিত হওয়ার জন্য।’

নিউ ইয়র্ক টাইমসের মুখপাত্র দাবি করেছেন, প্রকাশিত খবরের বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে তারা আত্মবিশ্বাসী এবং প্রকাশিত খবরেই সব জবাব রয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৭-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.