হোসেনপুরে আগুনে পোড়া ভবনেই ঝুঁকি নিয়ে ক্লাশ করছে শিক্ষার্থীরা

ওমর ফারুক খান জনি, নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

ঝুঁকি নিয়ে ক্লাশ করছে কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা। যেখানে তারা আনন্দ ও প্রাণ খোলে পড়াশুনায় ব্যস্ত থাকার কথা, সেখানে এখন ভয়ে থাকে তারা। কখন যেনো বিদ্যালয়ের চালসহ দেয়াল ধসে পড়ে। এনিয়ে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরাও রয়েছেন চরম আতংকে ।

আর এই ভয় ও আতংকের প্রধান কারণ হলো-গত বৃহস্পতিবার (০৩ আগস্ট) দুপুর আড়াইটার পর বিদ্যালয়ের হাফবিল্ডিং (টিনসেড) ভবনে ভয়াবহ আগুনে লাগে। এতে বিদ্যালয়ের ছয়টি শ্রেণিকক্ষসহ বে , আসবাবপত্র ও বিদ্যালয়ের কিছু কাগজ পত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার সাহেদল ইউনিয়নের ৪১ নং আশুতিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে এই চিত্র।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৩৬ সালে প্রায় ৫০ শতাংশ জমি নিয়ে প্রতিষ্ঠিত এ বিদ্যালয়ে এ বছর প্রাক-প্রাথমিকসহ ৫ম শ্রেণির ২শ’ ৬৬জন শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছে। আর প্রধান শিক্ষকসহ ৯ জন শিক্ষক এই বিদ্যালয়ে পাঠদান করাচ্ছেন। আর বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পোড়া ভবনে বসেই ক্লাশ করছে।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম জানান, নির্দিষ্ট সময়ে বিদ্যালয় ছুটি দিয়ে বাড়িতে যাই। পরে জানতে পারি বিদ্যালয়ে আগুন লেগেছে। বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখি আগুনে সব পুড়ে গেছে।

এ নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝেও ক্ষোভ রয়েছে। শিশু শিক্ষার্থীদের পাশে স্থানীয়ভাবে সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না। অভিভাবকরা যদি তাদের ছেলে মেয়েদের অভয় দিয়ে স্কুলে পাঠান এবং সহযোগিতার হাত বাড়ান তবেই এই ভয় ও আতংক কেটে যাবে বলে মনে করছেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০৭-০৮-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ