অপহৃত শিশু রূপালী রংপুরে উদ্ধার

মোঃ জাহিদুল ইসলাম, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি ।।

ডিমলা, জলঢাকা, হাতীবন্ধা উপজেলা পুলিশ সাংবাদিক-এর তৎপরতায় এবং ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুর রহমানের সহযোগীতায় ফিরত পেল তার বাবা-মা রূপালীকে।

রূপালী নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মোঃ মতিয়ার রহমান ও মাতা মোছাঃ তহমিনার তিন সন্তানের মধ্যে সর্বশেষ কণ্যা সে পার্শ্ববর্তী জলঢাকা উপজেলার ভাবুনচুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী। সে গত ৪ আগষ্ট লালমনির হাট জেলা হতিবন্ধা উপজেলার ৪নং ওয়ার্ড কিসাত ধওলাই নাম স্থান থেকে অপহৃদ হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রূপালীর চাচাতো ভাই মইনুল এর সঙ্গে মাহবুল নামের এক ছেলের সঙ্গে বগুড়ায় এক বছর আগে দিন মুজরের কাজ করার সময় বন্ধুত্ব গড়ে উঠে। তারই সূত্র ধরে গত ১ আগষ্ট থেকে ৩ আগষ্ট মাহবুল তার স্ত্রীকে নিয়ে মইনুলের বাড়ীতে অবস্থান করে। এর পর ৩ আগষ্ট বাড়ী চলে যায়। গত শুক্রবার পূণরায় বন্ধু মইনুলের বাড়ীতে এসে রূপালীর খোঁজ করে এতে রূপালীর দাদিমা বলেন রূপালী তার চাচীর সাথে আত্মীয় খেতে গেছে। এ সময় নার্গিসের স্বামী মোঃ শফিকুল এর নিকট কৌশলে ঠিকানা নিয়ে মাহাবুল সেখানে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

অবশেষে গত কাল ৮ আগষ্ট রংপুরে এক ভাড়া বাসায় রূপালীকে নিয়ে উঠলে বাসার লোকজনের সন্ধেহ হলে রংপুর কতোয়ালী থানায় খবর দেয়। থানা তদন্ত ওসি সুপদ মেয়েটিকে উদ্ধার করে ডিমলা, জলঢাকা ও হাতীবন্ধা থানা সহ চেয়ারম্যান আমিনুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করে। মেয়েটির ব্যাপারে চেয়ারম্যান তার পরিচয় নিশ্চিত করে।

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০৯-০৮-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ