“তুমি আমি” : সাবিকুন্নাহার রিয়া

সাহিত্য ও সংস্কৃতি ।।

“তুমি আমি” : সাবিকুন্নাহার রিয়া
========================

তুমি বেলীর মিষ্টি ঘ্রাণের মত,
কখনো ক্ষেতের আলের মত,
আমায় ঘিরে থাকো।
আমায় আগলে রাখো।
আমিও তাই তোমাতেই খুশি থাকি।
তোমার অপেক্ষায় –
নিজেকে সাজিয়ে রাখি।


তুমি কখনো আমার কোলজুড়ে আসো।
মাতৃস্নেহে উৎলে উঠে আমায় ভালোবাসো।
আর আমি-
তোমাতেই পূর্ণ হয়ে
নিজেকে ভাবি দামি।


কখনো আমিও হই তোমার আত্নজ।
যেমন ঢেউয়ে ভাসে লতাগুল্ম জলজ,
তেমনি করে তোমার কোলে
ভেসে বেড়াই আমি।
তোমারি যত্নে লালিত হই
যেন কোহিনূর কোন দামি।


তুমি বড্ড মেজাজি।
তোমায় খুশি রাখতে আমি
সংসারের ডালা সাজি।


তুমি বড্ড খেয়ালী।
মা,বোন,সহধর্মীনী হয়ে
ঘুচাই তোমার হেয়ালী।


তুমি আদুরে ছেলে।
আমার কাছেই হাজির হও
আবদারের ডালি মেলে।
আমি ভাবি,
তুমি আমার সবই।


তুমি বৃত্ত,
তার কেন্দ্র আমি।
তুমিই বলোনা
কে বেশী দামি?
কেনো চাওনা মানতে তুমি
আমার অস্তিত্ব।
আমাকেই কেন বলতে হবে
আমার গুরুত্ব?


তোমা তরে উজার আমার দিবস যামিনী।
তুমি কেন অর্ধাঙ্গ নও
যখন, আমি অর্ধাঙ্গিনী?
আমি কি কোন বস্তু
তুমি যে আমার স্বামী?
এবার বলো-
আমি কেমন দামী?

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০৯-০৮-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments are closed.