কাতারে পরকীয়ায় লিপ্ত হওয়ার সন্দেহে স্ত্রীর যৌনাঙ্গে সুপার গ্লু দিয়ে সিলগালা করলেন পাষণ্ড স্বামী

কাতার থেকে :

ব্যাসায়িক ভ্রমণে কয়েকদিনের জন্য বিদেশ যাবেন স্বামী। এই সুযোগে অন্যের সঙ্গে ব্যভিচারে লিপ্ত হতে পারে এই সন্দেহে স্ত্রীর গোপনাঙ্গ ‘সুপার গ্লু আঠা’ দিয়ে সিল করে দিয়েছেন কাতারের এক ব্যক্তি। দেশটির জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম দোহা ট্রিবিউন এই খবর প্রকাশ করেছে।

এই ঘটনায় মারাত্নক অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই নারী। পরে তাকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয়।ঘটনার পর ৩৩ বছরের ওই স্বামীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে।তিনি বিচারকের কাছে দোষ স্বীকার করে বলেন- ফেসবুকে ১২ বছরের চাচাতো ভাইয়ের একটি পোস্ট দেখে ধারণা হয়েছিল যে, তার অনুপস্থিতিতে স্ত্রী ওই চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে ব্যাভিচারে লিপ্ত হতে পারে তাই তিনি এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

বিচারকের কাছে তিনি ফেসবুকের একটি সেলফি পোস্টও দেখিয়েছেন যেখানে তার স্ত্রীর পা স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে এবং ইসলামী আইন অনুযায়ী ঢাকা নেই। স্ত্রীকে ইসলাম সম্মতভাবে চলার নির্দেশ দিয়েও কোন কাজ না হওয়ায় তিনি আগে থেকেই ক্ষুব্ধ ছিলেন বলে জানিয়েছেন বিচারককে।

স্ত্রীর প্রজনন অঙ্গ ধ্বংস করা ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।দোহা আদালতের বিচারক মুহাম্মদ বিন সাদেনের মতে, ‘এই অমানবিক কাণ্ডের মাধ্যমে স্বামী তার স্ত্রীর ওপর অন্যায় করেছে। যদিও তার উদ্দেশ্য ছিল ‘সৎকর্ম’ করা। কিন্তু তিনি যেটা করেছেন সেটা অদ্ভুত ও অমানবিক’।

এছাড়াও রায়ে বিচারক উল্লেখ করেছেন যে, আদালতে তার স্বামী যে সমস্ত সাক্ষী ও সাক্ষ্য-প্রমাণ উপস্থাপন করেছেন সেখান থেকে বলা যায় ঘটনাটি দুঃখজনক। তবে এই ঘটনায় স্ত্রীর আচারণও যথাযথ ছিল না। ভাবিষ্যতে এই ধরণের ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে স্ত্রীকে সতর্ক হতে বলা হয়েছে এবং এই ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটলে স্ত্রীকে ১০০ দোররা (চাবুক) মারা হবে বলে সতর্ক করেছেন।

স্বামীকে ৪০ রিয়াল জরিমানা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে স্ত্রীর ওপর এই ধরণের অমানবিক কর্মকাণ্ড করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১০-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.