বাজিতপুরে ৪০ ঘণ্টা লোডশেডিং!

Muktijoddhar Kantho , Muktijoddhar Kantho
আগস্ট ১৩, ২০১৭ ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ

মহিউদ্দিন লিটন, বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) থেকে :

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার বিপিডিপির আওতাধীন সরারচরসহ আশেপাশের প্রায় ৩হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টা৫৯ মিনিট হতে গতকাল শনিবার বিকাল ৩টা ৪৫মিনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ ছিলোনা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাজিতপুর নির্বাহী প্রকৌশলী অফিসের কর্মচারীদের ভেঙ্গে পড়া এক খুটি ঠিক করতে সময় লেগেছে ৪০ ঘণ্টা।

গ্রাহকদের অভিযোগ, বিদ্যুৎ অফিসের কিছু অসাধু কর্মচারীরা অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে ব্যাস্ত থাকার কারণে এই সময় লেগেছে।

এছাড়া গত কয়েক দিন ধরে মাত্রাতিরিক্তভাবে লোডশেডিং হওয়ার ফলে ব্যবসায়ীদেরও ব্যবসার মধ্যে লাল বাতি জ্বলে উঠার উপক্রম হচ্ছে। এদিকে বিদ্যুৎ না থাকার কারণে সন্ধার সময় স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়ার চরমভাবে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।
অন্যদিকে বিদ্যুৎ না থাকলেও এ অঞ্চলের বিদ্যুৎ গ্রাহকদের ভোতরে বিদ্যুৎ বিল দিতে হচ্ছে ঠিকই। গত কিছুদিন ধরে নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সালাউদ্দিন খান অভিযান চালিয়ে প্রায় শতাধিক অবৈধ বিদ্যুৎ গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে বলে বিদ্যুৎ অফিস সূত্রে জানা গেছে।
বাজিতপুর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সালাউদ্দিন খান গত কাল শনিবার জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে এই অঞ্চলের মেরামতের কাজ দেরী হয়েছে বলে উল্লেখ করেন।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১৩-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.