৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা দূর করার নির্দেশ আদলতের

Muktijoddhar Kantho , Muktijoddhar Kantho
আগস্ট ১৩, ২০১৭ ৩:৫৯ অপরাহ্ণ

আইন আদালত রিপোর্ট :

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হজযাত্রীদের ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা দূর করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে চলমান হজ অব্যবস্থাপনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না- তা জানতেও রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

রোববার বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ সংক্রান্ত আদেশ ও রুল জারি করেন।

হজযাত্রীদের চলমান অব্যবস্থাপনায় জড়িতদের বিষয়ে তদন্তসহ আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিশেষ হজ ফ্লাইটের নির্দেশনা চেয়ে রিট আবেদন করা হয়।

হজের অনিয়ম নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে রোববার সকালে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদন করেন।

রিটের ওপর শুনানি শেষে আদালত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হজযাত্রীদের ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা দূর করার নির্দেশ দেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সৌদি দূতাবাসকে আলোচনা করে নির্দেশনা বাস্তবায়নের কথা বলেন আদালত।

একই সঙ্গে বিমান না থাকলে ভাড়া করে ফ্লাইট পরিচালনারও নির্দেশ দেন আদালত।

এছাড়া হজ অব্যবস্থাপনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না এবং তাদের কেন আইনের আওতায় আনা হবে না- তা জানাতে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রিট দায়ের প্রসঙ্গে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এর আগে  জানান, ধর্ম,বিমান ও পর্যটন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং হাব কর্তৃপক্ষের একজনসহ মোট পাঁচজনকে রিট আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, যারা এখন পর্যন্ত হজে যেতে পারেননি রিটে তাদের বিশেষ বিমানে হজে পাঠানোর নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে রিটে হজের চলমান অব্যবস্থাপনার ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করার জন্য তদন্ত কমিশন গঠনের নির্দেশনা ও সৌদি সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা দূরীকরণে পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর সময় মতো ভিসা পাচ্ছেন না হজযাত্রীরা। হজযাত্রীর অভাবে একের পর এক বাতিল হচ্ছে হজ ফ্লাইট। সম্প্রতি ধর্মমন্ত্রী ২৮ এজেন্সিকে ভিসার আবেদন করতে সময় বেঁধে দিয়েছেন।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১৩-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.