হোসেনপুরে বন্যায় ৭টি গ্রাম কবলিত ৪ হাজার মানুষ পানি বন্ধী : এলাকা পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক

ওমর ফারুক খান জনি, নিজস্ব প্রতিবেদক :

হোসেনপুরে বন্যায় ৭টি গ্রাম কবলিত হয়েছে। ৪ হাজার মানুষ পানি বন্ধী। ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নতুন করে ৭টি গ্রাম প্লাবিত হয়। বন্যায় শতশত একর ফসলি জমির রোপা আমন, মৎস্য খামার ও শাক সবজির বাগান তলিয়ে গেছে। ব্রহ্মপুত্র নদের অব্যাহত ভাঙনে উপজেলার সাহেবেরচর প্রাথমিক স্কুলসহ বহু বসতভিটা নদের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বন্যা কবলিত এলাকা গুলো হল- সাহেবেরচর,
চরবিশ্বনাথপুর, চরকাটিহারী, চরআলগী, পোড়াবাড়িয়া, চরজামাইল ও পিতলগঞ্জ।

মঙ্গলবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ আজিমুদ্দিন বিশ্বাস বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন। তিনি ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পূর্নবাসনের জন্য নগদ অর্থ ও চাল বরাদ্দের জন্য উপজেলা প্রশাসনকে নিদের্শ দেন।

এসময় উপজেলা চেয়াম্যান জহিরুল ইসলাম মবিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা আওয়ামলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জহিরুল ইসলাম নুরু মিয়া, সাবেক ভিপি এমএ হালিম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দিলীপ দে, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ইমরুল কায়েস, উপজেলা প্রকৌশলী এজেড এম রকিবুল আহসান, সিদলা ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন, সহকারী প্রোগামার আনোয়ার হুসেন, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার সাদিকুর রহমান, হোসেনপুর প্রেমক্লাব সাধারণ সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন মানিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২২-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.