ডিএসইর প্রধান সূচক ৬ হাজারের কাছাকাছি

অর্থনৈতিক রিপোর্ট :  সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস বুধবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচক আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে।

এ নিয়ে উভয় শেয়ারবাজারে টানা তিন কার্যদিবস মূল্য সূচক বাড়লো। সেইসঙ্গে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক প্রায় ছয় হাজারের কাছে চলে এসেছে।

মূল্য সূচক বাড়লেও বুধবার ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। এ নিয়ে বাজারটিতে টানা দুই কার্যদিবস লেনদেন কমলো। তবে সিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ আগের কার্যদিবসের তুলনায় বেড়েছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে ২৫ পয়েন্ট। আর লেনদেন কমেছে ১২০ কোটি ৮১ লাখ টাকা। অপরদিকে, সিএসইতে সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে ৫১ পয়েন্ট। আর লেনদেন বেড়েছে ১৩ কোটি ২৯ লাখ টাকা।

বাজার পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বুধবার ডিএসইতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্সের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শুরু হয়। প্রথমদিকে সূচকের উত্থান ছিল সীমিত। মূলত শেষ ঘণ্টায় এসে একের পর এক প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়তে থাকে। ফলে বাড়তে থাকে মূল্য সূচকও।

এতে দিনের লেনদেন শেষে মূল্য সূচকের বড় উত্থান ঘটে। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৫ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৯৭৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ আর মাত্র ২৭ পয়েন্ট বাড়লেই ছয় হাজারের মাইল ফলক ছুঁয়ে ফেলবে ডিএসইএক্স।

প্রধান মূল্য সূচকের পাশাপাশি বুধবার বেড়েছে অপর দু’টি মূল্য সূচক। এর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১২৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরীয়াহ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩১৯ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮০৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৯২৪ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ১২০ কোটি ৮১ লাখ টাকা।

বাজারটিতে লেনদেন হওয়া ১৪২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। দাম কমেছে ১৩৬টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টির দাম।

টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৪৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা এবি ব্যাংকের ৩১ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৩ কোটি ৩৯ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক।

লেনদেনে এরপর রয়েছে যথাক্রমে- আল-আরফা ইসলামী ব্যাংক, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম, বিবিএস কেবলস, ফরচুন সুজ, আরএকে সিরামিক, আলহাজ টেক্সটাইল এবং এক্সিম ব্যাংক।

অপর শেয়ারবাজার সিএসইতে সিএসসিএক্স সূচক ৫১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ২০৮ পয়েন্টে।

বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৬৩ কোটি ২১ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৫১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ১২৩টির দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। দাম কমেছে ১০১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির দাম।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/৩০-আগস্ট২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ