কিশোরগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, ওসিসহ আহত ৪০

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৭ ১০:৩৪ অপরাহ্ণ

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ।। কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আনিস (২২) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মিঠামইন থানার ওসি ও চার পুলিশসহ আহত হয়েছেন অন্তত ৪০ জন।

৪ সেপ্টেম্বর সকালে উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আনিস ঘাগড়া ইউনিয়নের কলাপাড়া মিয়ারহাটি গ্রামের আরাফাত মিয়ার ছেলে।

স্হানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে অনেক দিন ধরে ঘাগড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা বুলবুল চৌধুরীর সঙ্গে একই এলাকার বাসিন্দা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু মিয়ার বিরোধ চলছিল। সোমবার সকালে যাতায়াত সুবিধার জন্য বাড়ির সামনে পুকুরের পাড়ে মাটি ভরাটকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়ায়। প্রায় ২ ঘণ্টা চলা সংঘর্ষের সময় প্রতিপক্ষের বল্লমের আঘাতে ঘটনাস্হলেই আনিস মারা যায়। তিনি বুলবুল চৌধুরী গ্রুপের সমর্থক।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্হলে গেলে সংঘর্ষে লিপ্তরা পুলিশকে ধাওয়া করে। এ সময় ইট-পাটকেলের আঘাতে মিঠামইন থানার ওসি,উপ-পরির্দশক সিরাজসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হন। পরিস্হিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মিঠামইন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠকে জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিস্হিত নিয়ন্ত্রণে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা রুজুর প্রক্রিয়া চলছে বলেও উল্লেখ করেন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০৪-০৯-২০১৭ইং/ অর্থ

Leave A Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ পাওয়া