এসডিএফ এর আয়োজন ঘোড়াঘাটে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

একরামুল হক, দিনাজপুর (ঘোড়াঘাট) প্রতিনিধি।। বুদ্ধিদীপ্ত,কর্মঠ ও আন্তরিকতা সম্পন্ন মেধাবী ছাত্রদের নিয়ে ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া ‘দ্যা স্টুডেন্ট ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) এখন উপজেলার বহুল আলোচিত একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

এর প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দুস্থ ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদেরআর্থিক সহায়তা প্রদান,প্রতিভাবান ছাত্র-ছাত্রীদের দিক নির্দেশনা,বাল্যবিবাহ রোধ ও বাৎসরিক ঈদ পুর্নমিলনীর মত সামাজিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছে সংগঠনটি।

প্রতিবারের ধারাবাকিতায় ঈদুল আজহা উপলক্ষে এবারের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়।অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথী ছিলেন ঘোড়াঘাটের উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ্ মো শামীম চৌধুরী ।প্রধান অতিথীর বক্তব্যে তিনি কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে উপদেশ মুলক বক্তব্যের পর বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি দেন এবং শিক্ষার্থীদের উৎসাহ ও অনুপ্ররনা মুলক অনুষ্ঠান আয়োজন করায় এসডিএফ সদস্যদের ভূয়সী প্রশংসা করেন”। বিশেষ অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কবিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক ডা. আব্দুল্লাহ আল নোমান।গ্রামের গন্য-মান্য লোকের মধ্যে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন আব্দুল হাকিম ও আব্দুল মতিন। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ,শিক্ষক,শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন পর্যায়ের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা। পুরো অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন হাদীসুর রহমান।

দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের প্রথম অধিবেশন বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়ে শুরু হয়।এসময় এলাকার প্রায় তিন শতাধিক রোগীকে বিনামুল্যে চিকিৎসা দেয়া হয়। চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন ডাক্তার আব্দুল্লাহ আল নোমান ,ডাঃ রায়হান, ডাঃ জহুরা আক্তার জ্যোতি, ডাঃ ফজলে খোদা,ডাঃ আব্দুল আহাদ ও ডাঃ সজল। দুপুরে নামাজ ও খাবারের বিরতির পর শুরু হয় দ্বিতীয় অধিবেশন।এ পর্বে এলাকার প্রায় ১৪০ জন কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়।আমন্ত্রিত কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা সঙ্গীত পরিবেশন করেন মো শাহজালাল ও তার সহযোগী। এর পর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় রাতের অধিবেশন।সংগঠনের নিজস্ব পরিবেশনায় অনুষ্ঠানটি দারুন উপভোগ করেন উপস্থিত দর্শক।তাদের পরিবেশনার মধ্যে ছিল হামদ,নাত,ইসলামীসংঙ্গীত,দর্শক হাসানো কৌতুক ও শিক্ষনীয় নাটীকা।অনেক প্রতিকূল পরিবেশের মাঝেও অনুষ্ঠানটি সঠিক,সুন্দর ও শৃঙ্খলতার সাথে শেষ করতে পারায় এলাকা বাসী,সংগঠনের সকল সদস্য ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান সংগঠনের কার্যকারী পরিষদের সদস্য আবু রাফে ও মাসুদ রানা।

এ দিনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে আলীহাট দাখিল মাদরাসার সুপার মাও আব্দুল মান্নান বলেন,বর্তমান এই প্রযুক্তির যুগে তরুন সমাজ যে ভাবে আকাশ সাংস্কৃতির দিকে আসক্ত তাতে এই ধরনের ধর্মীয় অনুষ্ঠান বর্তমান প্রজন্মকে সুস্থ বিনোদন দিতে সক্ষম।

 

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ডটকম/০৫-০৯-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments are closed.