ইরমার তাণ্ডবে ক্যারিবিয়ানে নিহত ২৫, ফ্লোরিডায় তীব্র আঘাতের অপেক্ষা

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট : আটলান্টিক মহাসাগরে উৎপন্ন শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইরমা’র আঘাতে অন্তত ২৫ জনের প্রাণহানির খবর দিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা। এদিকে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, এরইমধ্যে ফ্লোরিডায় ওই ঝড়ের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। আটলান্টিক মহাসাগরে গত ১০০ বছরের ইতিহাসে এটি অন্যতম ভয়ঙ্কর ঝড়।

আলজাজিরার খবর অনুযায়ী, শুক্রবার মাঝরাতে কিউবার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় কামাওয়ে আর্কিপ্যালেগো উপকূলে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড়টি।  হারিকেনের প্রভাবে ঝড়ো বাতাস ও তীব্র বৃষ্টি হয়েছে সেখানে।  দেখা দিয়েছে বন্যা।  ইরমার দাপটে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের বারবুডা, সেন্ট মার্টিন এবং ব্রিটিশ ও মার্কিন ভার্জিন দ্বীপগুলি। বাড়ি-হাসপাতাল সবই মাটিতে মিশে গিয়েছে। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে উত্তর উপকূলের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র ছেড়ে যায় অন্তত ৫০ হাজার পর্যটক। ঝড়ে অন্তত ২৫ জনের প্রাণহানি হয়।

বিবিসির খবর অনুযায়ী, এরইমধ্যে দ্বীপপুঞ্জে আঘাত হেনেছে  ইরমা। এখন এটি মূল ভূখন্ডে আঘাতের অপেক্ষায় রয়েছে। শক্তিশালী এই ঝড়ের প্রভাবে এখন ফ্লোরিডার দক্ষিণ-পূর্ব এলাকায় প্রচণ্ড ঝড় হচ্ছে। উপকূলের দিকে দুইশ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইছে। সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ায় বাড়িঘর ডুবিয়ে দেয়ার মতো জলোচ্ছাস হবারও সম্ভাবনা রয়েছে। শক্তিশালী ঝড়টি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ধ্বংসাত্মক দুর্যোগ বয়ে আনবে বলে সতর্ক করেছে ফেডারেল ইমারজেন্সি এজেন্সি।  ঝড়ের প্রভাবে কয়েকদিনের জন্য ফ্লোরিডা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন থাকতে পারে।  এরইমধ্যে বেশকিছু বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

 ফ্লোরিডার গভর্নর রিক স্কট বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়টি আকারে পুরো ফ্লোরিডা রাজ্য থেকেও বড়। এটি রাজ্যের এক উপকূল থেকে আরেক উপকূল পর্যন্ত জীবন ধ্বংসকারী প্রভাব ফেলবে। তিনি রাজ্যের সব ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। জরুরি সেবা সংস্থার কর্মীরা বলছেন, লাখ লাখ মানুষকে তাদের বাড়িঘর ছেড়ে সরে যেতে বলা হয়েছিল। সেই সময়সীমা এরইমধ্যে শেষ হয়েছে।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১০-সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ