নাটোরে অস্ত্র মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ড যুবকের

আইন আদালত রিপোর্ট : অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র নিজের কাছে রাখার অপরাধে নাটোরে রাব্বি ইসলাম (২৩) নামে এক যুবককে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে নাটোরের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালত ৪ এর বিচারক এস এম হুমায়ুন কবির এ আদেশ দেন। রাব্বি ইসলাম জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার কয়েনবাজার এলাকার নওশাদ আলীর ছেলে।

নাটোর জজ কোর্টের সহকারী প্রাবলিক প্রসিউকিটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট লুৎফর রহমান বাবু এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, ২০১৫ সালের ১২ জুলাই রাত পৌনে ১০টার দিকে কয়েনবাজারের এমএন সুপার মার্কেটের পেছন থেকে রাব্বিকে পুরনো পিস্তল, ম্যাগজিন ও তিন রাউন্ড গুলিসহ আটক করে র‍্যাব ৫ এর সদস্যরা।

এ ঘটনায় রাজশাহী র‌্যাব ৫ এর ডিএডি মো. মহিদুল হোসেন বাদী হয়ে রাতেই তার বিরুদ্ধে বড়াইগ্রাম থানায় ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯- এ ধারায় (অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র হেফাজতে রাখার অপরাধ) মামলা করেন। ওই মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে অপরাধ প্রমাণ হওয়ায় দুপুরে আদালত এ রায় দেন।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১০-সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.