ভৈরবে শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ ।। কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি ভৈরবসহ দেশের ১০টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম, ২টি নির্মাণ সমাপ্ত বিদ্যুৎকেন্দ্র,ভারতের ত্রিপুরা হতে রেডিয়াল মোডে অতিরিক্ত ৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ কার্যক্রম ও পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের উদ্বোধন করেন।

শতভাগ বিদ্যুতায়ন উদ্বোধন উপলক্ষে ভৈরব উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অয়োজিত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিমুদ্দিন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোজাম্মেল হক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও উপ-সচিব তরফদার মোহাম্মদ আক্তার জামীল,পৌরমেয়র অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছ,উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ সায়দুল্লাহ মিয়া,সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু,জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান মির্জা সুলায়মান,ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দিলরুবা আহমেদ, নরসিংদী পল্লী সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) প্রকৌশলী সাইরুল ইসলাম, সুপারিন্টেন্ট প্রকৌশলী অঞ্জন কান্তি দাস প্রমুখ।

এ সময় প্রশাসন,জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,মুক্তিযোদ্ধা,সুশীল সমাজ,বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাগণ ছাড়াও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্হিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নরসিংদী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ ও বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড (বিপিডিবি) এর অধীনে ভৈরবে ২২ দশমিক ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৪৯ কিলোমিটার বিতরণ লাইন নির্মাণ করে বিভিন্ন শ্রেণির ১২ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচীর সফল সমাপ্তি করা হয়েছে।

নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সুবিধার উন্নয়নে বাজিতপুরের সরারচরে পিজিসিবি কর্তৃক একটি ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। যা আগামী ২০১৮-১৯ সাল নাগাদ সমাপ্ত হবে। এই অঞ্চলের বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়নে কুলিয়ারচরে চলমান একটি ১৫ এমভিএ ৩০/১১ কেভি উপকেন্দ্র ছাড়াও আরও একটি ১০ এমভিএ উপকেন্দ্রেও নির্মাণ শেষ হয়েছে। একইভাবে ৩৩ কেভি ও বিতরণ লাইনের সম্প্রসারণ ও উন্নয়ন কাজ চলছে। ইতোমধ্যে আশুগঞ্জ গ্রীড থেকে ভৈরব পর্যন্ত পিডিবি কর্তৃক ৩৩ কেভি তৃতীয় সার্কিট চালু করা হয়েছে।

সরারচরস্থ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত নরসিংদী গ্রীড থেকে কুলিয়ারচর-ভৈরব এলাকায় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষ্যে ৪৮ কি:মি: ৩৩ কেভি লাইনের নির্মাণ কাজ চলমান আছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর নাগাদ এ লাইনের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হলে এ অঞ্চলের বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা আরও নির্ভরযোগ্য হবে। যার ফলে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিরবিচ্ছিন্ন হবে।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১০-সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ