বগুড়ায় অপহৃত মা ও শিশু পুত্র উদ্ধার, আটক ৫

বগুড়া, জেলা প্রতিবেদক : অপহরনের চার দিনের মাথায় অপহৃত মা ও শিশু পুত্রকে উদ্ধার করেছে বগুড়ার সোনাতলা থানা পুলিশ।

এঘটনায় নারীসহ অপহরন চক্রের ৫ সদস্যকে আটকের পর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

উদ্ধারকৃতরা হলেন- ময়মনসিংহের ফুলবাড়ী উপজেলার মণ্ডলবাড়ী গ্রামের হযরত আলীর স্ত্রী চামেলী বেগম (২৬) ও তার শিশু পুত্র রিয়াদ (৪)।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সোনাতলা থানার এসআই সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

অপহৃতার স্বামী হযরত জানান, গত ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার ময়মনসিংহের ফুলবাড়ী উপজেলার মণ্ডলবাড়ী গ্রাম থেকে আমার শশুরবাড়ী গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার খামারদুকানি গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। ওইদিন বিকেলে বগুড়া বাস টার্মিনালে বাস পরিবর্তনের জন্য নামে চামেলী বেগম ও শিশু পুত্র রিয়াদ। টার্মিনালে জমিলা খাতুন (৩৫) নামের এক মহিলা তারও বাড়ী গাইবান্ধার কথা বলে কৌশলে একটি মাইক্রোবাসে তোলে। তাদেরকে মাইক্রোবাসে তুলে গাইবান্ধার দিকে না গিয়ে সোনাতলা উপজেলার সৈয়দ আহম্মেদ কলেজ স্টেশন এলাকার বটতলা নামক জায়গায় একটি বাড়ীতে লুকিয়ে রাখে। পরে চামেলীর স্বামীর নিকট ০১৭৯০-২৭৮৩৪৮ নং মোবাইল নম্বর থেকে ৪ লাখ টাকার মুক্তিপণ দাবী করে অপহরণকারীরা। চামেলীর স্বামী হযরত বিষয়টি পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে সৈয়দ আহম্মেদ কলেজ স্টেশন এলাকার বটতলায় অপহরণকারীদের অবস্থান নিশ্চিত হয়।

সোনাতলা থানা পুলিশ বুধবার ভোরে অভিযান চালিয়ে উপজেলার হলিদাবগা গ্রামের গাদু মিয়ার স্ত্রী জমিলা বেগম (৩৫), আব্দুস সামাদের মেয়ে শিলা খাতুন (২৮), গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার আব্দুল হান্নানের মেয়ে শারমিন আকতার (২০), সোনাতলা উপজেলার নওদাবগা গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আশরাফুল ইসলাম ভোলা (৩২) ও একই গ্রামের জামাল উদ্দীনের ছেলে হাসান (১৫) কে গ্রেফতার করে। সেই সাথে উদ্ধার করে অপহরণকৃত চামেলী বেগম ও তার পুত্র রিয়াদকে।

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ