‘সরকার বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ভাঙার চেষ্টা করছে’

রাজনৈতিক রিপোর্ট : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ভাঙার চেষ্টা করছে। এ জন্য শরিক দল কল্যাণ পার্টির মহাসচিবকে অপহরণ করে অন্যদের ভয় দেখানো হচ্ছে। তিনি বলেন, জোট ভাঙার চেষ্টা অতীতেও হয়েছে কিন্তু পারেনি। জোট অটুট আছে। রাষ্ট্র যদি জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা ও প্রতারণা করে সঠিক তথ্য না দেয়, সেক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী তো রাষ্ট্রই। অথচ সরকার এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব হচ্ছে যদি কেউ গুম হয়ে যায় তাকে খুঁজে বের করা। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকে গুম শুরু হয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে এখন তা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশে কোনো মানুষের নিরাপত্তা নেই।

আজ শনিবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০-দলীয় জোটের মহাসচিবদের নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এ অভিযোগ করেন। জোটের শরিক কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর  রহমানসহ সব নিখোঁজ ব্যক্তিকে অবিলম্বে ফেরত দিতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান মির্জা ফখরুল।

দেশে কোনো মানুষের নিরাপত্তা নেই এমন অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে চৌধুরী আলম, ইলিয়াস আলী থেকে শুরু করে বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের ৩০০ এর কাছাকাছি নেতাকর্মী গুম হয়ে গেছে। গুম হচ্ছে মানবতাবিরোধী জঘন্য অপরাধ। এর পরিণতি হয় করুন। একদিন না একদিন বিভিন্ন দেশে এর বিচার হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। আমরা শুরু থেকেই বলে আসছি, সরকার রোহিঙ্গা ইস্যুতে যেন জাতীয় ঐক্যমত তৈরি করে। সেটিতেও তারা ব্যর্থ হয়েছে। কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, গত ২৭ আগস্ট নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয় থেকে সাভারে নিজ বাসার উদ্দেশে রওনা হয়ে এখনো বাসায় পৌঁছায়নি এম এম আমিনুর রহমান। তাকে দল ও পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ