ভয়াবহ অস্থির হয়ে উঠেছে বাজার, দেশে দুর্ভিক্ষের আশঙ্কা বিএনপি’র

রাজনৈতিক রিপোর্ট : বিএনপি বলেছে, ভয়াবহ অস্থির হয়ে উঠেছে দেশের চালের বাজার। প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে চালের দাম। যা বর্তমানে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। চলতি সপ্তাহে এক লাফে প্রায় সব চালের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। এ অবস্থায় দিশেহারা সাধারণ মানুষ। বর্তমানে চালের দাম বাংলাদেশের ইতিহাসের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

বর্তমানে মোটা চালের দাম ৫৫ টাকা, মিনিকেট চাল বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ টাকা কেজিতে। আজ কোথায় আপনাদের প্রাণের বন্ধু ভারত? এই খাদ্য সংকটের দিনে ভারত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে এই মুহূর্তে চাল রপ্তানি করবে না। এই হলো বন্ধুত্বের পরিচয়। সরকারের দেশ পরিচালনায় লুটপাটের নীতির কারণে ৭৪ এর ন্যায় ভয়াল দুর্ভিক্ষ চারদিক থেকে ধেয়ে আসছে। দেশে ভয়াবহ  দুর্ভিক্ষের প্রতিধ্বনি শোনা যাচ্ছে। এই দুর্ভিক্ষ প্রতিরোধ করবে কে?
গতকাল মঙ্গলবার বিকালে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন। লিখিত বক্তব্যে রিজভী বলেন, বিএনপি শাসনকালের শেষ দিনেও মোটা চালের দাম ছিল ১৬ টাকা। বর্তমানে চালের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে নিম্ন মধ্যবিত্ত, দিনমজুর, শ্রমিক তথা খেটে মানুষ এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। সরকারের তরফে মজুতদারি ও সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণার পর গত দু’দিনে আরও বেড়েছে চালের দাম। প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সরকারের মন্ত্রীরা বলছেন কোটি কোটি টন চালের মজুদ আছে, তাহলে চালের বাজারের অস্থিরতা কমছে না কেন?  চালের পর্যাপ্ত সরবরাহ নেই বলেই মূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হচ্ছে সরকার।
রিজভী অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতেই হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রীর কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন,জ্বি হুজুর জ্বি হুজুর করে এই রোহিঙ্গা সংকট সমাধান সম্ভব নয়।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২০সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.