ভৈরব-আশুগঞ্জ দ্বিতীয় রেল সেতুর উদ্বোধন অক্টোবরে

সজীব আহমেদ, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) থেকে।। ভারতীয় লাইন অব ক্রেডিট (এলওসি) অর্থায়নে বাংলাদেশ রেলওয়ের তত্ত্বাবধানে ভৈরব-আশুগঞ্জ মেঘনা নদীর উপর নির্মিত ভৈরব দ্বিতীয় রেলসেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

শনিবার রেল সেতু প্রকল্প পরিচালকসহ রেলওয়ের উচ্চ পর্যায়ের ৭ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল নবনির্মিত ভৈরব দ্বিতীয় সেতুটি পরিদর্শন করে।

এসময় সেতুর উপর দিয়ে পরীক্ষামূলকভাবে ৭৫ কিঃ মিঃ গতিবেগে ইঞ্জিনসহ ট্রায়াল ট্রেন ও ট্যাংকার ট্রেন চালানো হয়। আগামী অক্টোবর মাসের যে কোনো সময় সেতুটি প্রধানমন্ত্রী উদ্ধোধন করার সম্ভাবনা রয়েছে।

রেলওয়ের ৭ সদস্যের প্রতিনিধিদলে ছিলেন ভৈরব-আশুগঞ্জ মেঘনা নদীর দ্বিতীয় রেল সেতুর প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো.আব্দুল হাই, সরকার রেলওয়ে পরিদর্শক (জিআইবিআর) মো. আক্তারুজ্জামান হায়দার, ভৈরব-আশুগঞ্জ মেঘনা নদীর দ্বিতীয় রেল সেতুর কন্সটাকশন ফার্ম ইরকন-এফকন্স জয়েন্টভেঞ্চারের প্রকল্প ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী অমিয়াংশ দাস, রেলওয়ের ডিএসটিই প্রকৌশলী তারেক মো. শামস তুষার, প্রধান সংকেত ও টেলিযোগাযোগ প্রকৌশলী চন্দন কান্তি দাস ও প্রকৗশলী মিয়া জাহান।

গত ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে এই সেতুর কাজ শুরু করা হয়। প্রায় ৯৮২.২ মিটার দীর্ঘ এই রেল সেতুটির নির্মাণ কাজে ব্যয় ধরা হয় ৫৬৭ কোটি ১৬ লাখ টাকা। ভারতের IRCIN-AFCONS JV নামে একটি জয়েন্ট ভেঞ্চার ঠিাকাদারী প্রতিষ্ঠান এর নির্মাণ কাজ করছেন। সেতুটির বিশেষ দিক হচ্ছে দেশের ইতিহাসে এই প্রথম সেতুটিতে ১২০ মিটার স্প্যান সংযোজন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রেল সেতুর প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো.আব্দুল হাই বলেন, অক্টোবর মাসের যে কোন সময় সেতুটি প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। সেতুটি চালু হলে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল ভ্রমণ আরামদায়ক ও সহজ-সাশ্রয়ী হবে এবং পণ্য পরিবহনে সময় বাচঁবে। এ পথে ট্রেন চলাচলে সময় অন্তত দেড়ঘন্টা কমে আসবে।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২২-০৯-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ