ইলিশ-বিরিয়ানির রেসিপি!

লাইফ স্টাইল রিপোর্ট : বাড়িতে অনেকেই চিকেন বা মাটন বিরিয়ানি রাঁধেন, কিন্তু ইলিশ বিরিয়ানিতে হয়তো এখনও অনেকে হাত পাকাননি। তাই এর চটজলদি রেসিপি ট্রাই করে দেখতে পারেন ঘরের মধ্যেই।

এর জন্য লাগবে ৩০০ গ্রাম বাসমতি রাইস, ৬ পিস ইলিশ মাছ, জায়ফল ও জয়িত্রি গুঁড়ো হাফ চামচ করে, ৫০ গ্রাম ঘি, আলু (বিরিয়ানির মতো করে কাটা), পেঁয়াজ, এক গ্লাস দুধে পনেরো মিনিট আগে ভিজিয়ে রাখা এক চামচ কেসর, গরম মশলা (দারচিনি ছোট ৩ টুকরো, এলাচ ১২টি, লবঙ্গ ১২টি)।

প্রথমে একটু বেশি তেলে মাছ ভেজে তুলে রাখতে হবে। তেলটিও তুলে রাখতে হবে আলাদা করে। বাসমতি চালের ভাত প্রায় সেদ্ধ করে জল ঝরিয়ে রাখতে হবে। আলু ও পেঁয়াজ ভেজে নিতে হবে আলাদা করে। এবার একটি ডেকচি বা হাঁড়িতে ৫০ গ্রাম ঘিয়ের বেশিরভাগটাই নিয়ে ভাল করে ভিতরে মাখিয়ে দিতে হবে। তারপর সেদ্ধ ভাতের একটি লেয়ার তৈরি করে তার উপরে ভাজা দু’পিস মাছ ভাজা, আলু ও পেঁয়াজের তিনভাগের একভাগ দিতে হবে। এরকম মোট তিনটি লেয়ার হবে এবং প্রত্যেক লেয়ারেই গরম মশলার তিনভাগের একভাগ, জায়ফল-জয়িত্রি গুঁড়োর তিনভাগের একভাগ ছড়িয়ে দিতে হবে।

মাছভাজার তেল ও বাকি ঘি মিশিয়ে নিয়ে সেটিও ছড়িয়ে দিতে হবে তিনটি লেয়ারে।

ভাত সেদ্ধ করার সময় লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নেওয়াই ভাল। তবে তার পরেও হাঁড়িতে লেয়ার তৈরি করার সময়ে অল্প একটু লবণ ছড়িয়ে দিতে হবে প্রয়োজন হলে। এবার সবচেয়ে উপরের লেয়ারটি উপরে সমান দূরত্বে তিনটি গর্ত করতে হবে আঙুল দিয়ে। ওই গর্তের মধ্যে দিয়ে ঢেলে দিতে হবে কেসর-ভেজানো দুধ।

এরপরে হাড়িরর মুখটি আটা দিয়ে ভাল করে বন্ধ করে মৃদু আঁচে রান্না করতে হবে ৫ থেকে ৭ মিনিট মতো। রান্না হয়ে গেলে সার্ভ করার আগে প্রথমে মাছগুলি তুলে নিয়ে একবার ভাল করে পুরো ভাতটা হাতা দিয়ে নেড়ে নিতে হবে। ইচ্ছে করলে এই রান্নাকে ইলিশ-পোলাও বলা যেতেই পারে।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২৬সেপ্টেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ