কুলিয়ারচরে পূজা মন্ডপে পূজারী দর্শনার্থীদের ঢল

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ।। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও শুরু হয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। গত মঙ্গলবার মহাষষ্ঠির মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে পুজার কার্যক্রম শুরু হয়। উলুধ্বনি শঙ্খ ধ্বনি,ঘন্টা আর ডাক ঢোলের মাধ্যমে পূজারীরা দেবী দুর্গার চরনে নিজেদেরকে সর্মপণ করে দেবী দুর্গাকে খুশি করার আপ্রাণ প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। দূর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে পূজারী ভক্ত বৃন্দের মাঝে বয়ছে উৎসবের আমেজ । মন্ডপগুলোকে সাজানো হয়েছে বর্ণাঢ্য সাজে। পূজারী ভক্ত বৃন্দ শিশু কিশোর সনাতন ধর্মের সকল শ্রেণীর ধর্ম প্রাণ মানুষ নুতন জামা কাপড় পড়ে পূজায় অংশগ্রহণ করছেন। মন্ডপগুলোকে গেইট,ব্যানরা,ফেস্টুন এবং বর্ণিল আলোক সজ্জায় সজ্জিত করেছেন। দুর্গোৎসবের প্রথম দিন ষষ্ঠাদি কল্পারম্ভ ও বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাস এর মধ্য দিয়ে শুরু হয় দুর্গোৎসবের মূল পর্ব। বুধবার সপ্তমী,বৃহস্পতিবার মহাষষ্ঠি,শুক্রবার নবমী ও শনিবার বিজয়া দশমী এবং প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে শারদীয় দুর্গোৎসব। হিন্দু শাস্ত্রের পন্ডিত ও পূজারী,বক্তবৃন্দদের মতে জগতের মঙ্গল কামনায় দেবী দূর্গা এবার মর্তালোকে অর্থাৎ পথিবীতে আসবেন নৌকা চড়ে আর স্বর্গালোকে বিদায় নেবেন ঘটকা (ঘোড়ায়) চড়ে এ বছর উৎসব মুখর পরিবেশে কুলিয়ারচর উপজেলায় ৬ ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় ২৮ টি স্থানে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উপজেলার পৌর এলাকায় শ্রী শ্রী কালিবাড়ী দাসপাড়ায় সার্বজনীন দুর্গাপূজা,ঘোষ পাড়া রামানন্দ ঘোষের বাড়ী,পূর্ব গাইলকাটা ডাক বাংলার সামনে সনাতন যুব সংঘ শ্রী শ্রী দুর্গাপূজা,কুলিয়ারচর বাজার কালিবাড়ী,দোয়ারিয়া শীল পাড়া গোলাপ শীলের বাড়ী, দোয়ারিয়া পাল পাড়া, পৈলনপুর সার্বজনীন শ্রী শ্রী দুর্গাপূজা,টিয়াকাটা খালেকারকান্দি স্বর্গীয় গোষ্ট বর্মনের বাড়ী ও আলী আকবরী মিস্ত্রী বাড়ী মোট নয়টি মন্ডবে এবং সালুয়া ইউনিয়নের উত্তর সালুয়া স্বর্গীয় যোগেশ বর্মনের বাড়ী, মধ্য সালুয়া স্বর্গীয় বিপিন সূত্রধরের বাড়ী,দড়িগাঁও ফালু বর্মনের বাড়ী, দক্ষিণ সালুয়া স্বর্গীয় অমূল্য শীলের বাড়ী, কান্দুলিয়া জিতেন্দ্র চন্দ্র মোদকের বাড়ী, ডুমরাকান্দা বাজারে সন্তোষ কুমার গোস্বামীর বাড়ী,মোদকপাড়া জগবন্ধুর মহাশয়ের বাড়ী ও মাইজপাড়া নরেশ বিশ্বাসের বাড়ী সহ ৮ টি মন্ডবে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তাছাড়া রামদী ইউনিয়নের আগরপুর মোদকপাড়া কালিবাড়ী, পূর্বপাড়া যোগেষ বিশ্বাসের বাড়ী, নরেশ মোদকের বাড়ী,মনোহরপুর রঞ্জিত সূত্রধরের বাড়ী ও উছমানপুর ইউনিয়নে রায়েরচর ননী গোপালের বাড়ী,আলীরচর কাপাসাটিয়া স্বর্গীয় পলান দাসের বাড়ী, ফরিদপুর ইউনিয়নের নাপিতেরচর দুর্গামন্দির,গোবরিয়া আব্দুল্লাপুর ইউনিয়নের দশকাহুনিয়া জেলে পাড়া শারদীয় দুর্গা মন্ডব এবং ছয়সূতী ইউনিয়নের হাজারী নগর নিবারণ ভৌমিক ও সুরেশ ভৌমিকের বাড়ী, ছয়সূতী দাসপাড়া রঞ্জিত দাসের বাড়ী এবং মধাবদী কর্মকার পাড়া সার্বজনীন দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। দুর্গোৎসব পালনের জন্য সরকারি ভাবে প্রত্যেক পূজা মন্ডপে ৫০০ কেজী করে চাউল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে পূজামন্ডপ গুলিতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল মিল্লত, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ড.উর্মী বিনতে সালাম, কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ মকবুল হোসেন মোল্লা সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২৮-০৯-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ