৯০ রানেই অল-আউট বাংলাদেশ!

Muktijoddhar Kantho , Muktijoddhar Kantho
অক্টোবর ২, ২০১৭ ৪:৪২ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস রিপোর্ট : হার দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শুরু করল বাংলাদেশ। পচেফস্ট্রুম টেস্টে ৩৩৩ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরে গেছে মুশফিকুর রহিমের দল।

টাইগারদের দ্বিতীয় ইনিংস থেমে গেছে মাত্র ৯০ রানে। ৪১ রানের মধ্যে শেষ ৭ উইকেট হারিয়েছে সফরকারীরা। ম্যাচটি যে জেতা কিংবা ড্র করা অসম্ভব ব্যাপার তা আগেই বোঝা গিয়েছিল। তবে পঞ্চম দিনে ব্যাটিং প্র্যাকটিসটা সেরে নিতে পারত টাইগার ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু সেটা হলো না। কাগিসো রাবাদা আর কেশব মহারাজ সেই সুযোগটাই যে দিলেন না! দুজন মিলেই শেষ ৭ উইকেট তুলে নিলেন আজ।

৩ উইকেটে ৪৯ রান নিয়ে পঞ্চম দিন শুরু করেছিল বাংলাদেশ। পঞ্চম দিনের শুরুতেই রাবাদার বলে ফিরেন টাইগার ক্যাপ্টেন মুশফিকুর রহিম (১৬)। রাবাদার বলটিতে বাড়ি বাউন্স ছিল।

ব্যাট বাড়িয়ে মারতে গেলেন মুশফিক। স্লিপে মাথার ওপর থেকে দারুণ ক্যাচ নিলেন হাশিম আমলা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসেই ব্যর্থ হলেন কিপিং ছেড়ে ৪ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামা মুশফিক।

ওই মুহূর্তে ঘুরে দাঁড়ানোর পরিবর্তে কাগিসো রাবাদার দুর্দান্ত এক বলে বোল্ড হয়ে যান সাকিবের অনুপস্থিতিতে টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়া মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ (৯)। রিয়াদের বিদায়ের কিছু পরেই সেই রাবাদাই প্যাভিলিয়নে পাঠান উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে। এলবিডাব্লিউ হওয়ার আগে তার সংগ্রহ মাত্র ৪ রান। কিপিংটা দুর্দান্ত করলেও ব্যাটিংটা মোটেও ভালো হলো না লিটনের।

কেশব মহারাজের বলে এলবিডাব্লিউ হওয়ার আগে সাব্বির রহমানও ৪ রানের বেশি করতে পারেননি। তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ৪ রান করে মহারাজের তৃতীয় শিকার হন তাসকিন আহমেদ। কেশব মহারাজ তাসকিনকেও লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে ফেলেন। শফিউল ইসলাম রানআউট হলে নবম উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের।

রান বাড়ানোর জন্য কিছুটা হাত খুলে খেলছিলেন অল-রাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু তার সঙ্গী ছিল না। মু্স্তাফিজকে নিয়ে শেষ উইকেটে ১২ রান তুলে ফেলেন তিনি। মুস্তাফিজকে (১) কেশব মহারাজ কট অ্যান্ড বোল্ড করে দিলে ৯০ রানেই থামে বাংলাদেশ। ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন মেহেদী মিরাজ। কেশব মহারাজ ৪টি, রাবাদা ৩টি এবং মরকেল ২টি উইকেট নিয়েছেন। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর করেছেন ইমরুল কায়েস (৩২)।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০২অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.