কিশোরগঞ্জের নগুয়ায় ইয়াবাসহ ১ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪

ডেস্ক রিপোর্ট ।। বর্তমানে আমাদের দেশের যুব সমাজের অধঃপতনের অন্যতম প্রধান কারণ মাদকাসক্তি। দেশের যুবসমাজের একটি বড় অংশ আশংকাজনকভাবে মাদক হিসেবে ব্যবহৃত ইয়াবা এর প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। মাদকের টাকা জোগাড় করার জন্য মাদকাসক্ত যুব সমাজ বিভিন্ন ধরনের অনৈতিক কার্যকলাপ, অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অবৈধ কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। “বাংলাদেশ আমার অহংকার” এই স্লোগান নিয়ে র‌্যাব যুব সমাজকে মাদকের ভয়াল থাবা থেকে রক্ষার জন্য প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দেশব্যাপী বিভিন্ন মাদক ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আপোষহীন অবস্থানে থেকে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে যা দেশের সর্বস্তরের জনসাধারন কর্তৃক ইতোমধ্যেই বিশেষভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কিশোরগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন নগুয়া এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী মাদক-দ্রব্য বিক্রয়ের জন্য অপেক্ষা করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি চৌকস আভিযানিক দল ০২ অক্টোবর ২০১৭ ইং তারিখে ১৬.৩০ ঘটিকায় র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার এএসপি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম এর নেতৃত্বে উক্ত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী ১। মোঃ জনি মিয়া (২৭), পিতাঃ মোঃ সিরাজ মিয়া, সাং-হারুয়া কলেজ রোড আমিরের বাসা, থানাঃ কিশোরগঞ্জ, জেলাঃ কিশোরগঞ্জকে গ্রেফতার পূর্বক তার দেহ তল্লাশী করে ৫১ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেন।

ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে ১৯৯০ (সংশোধনী ২০০৪) ইং সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(১) টেবিল ৯ (খ) ধারা মোতাবেক কিশোরগঞ্জ সদর থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০২-১০-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ