গিলে নিচ্ছিল অজগর! প্রাণে বাঁচলেন রবার্ট

রকমারি রিপোর্ট : ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপে ঘটল এক ভয়ঙ্কর ঘটনা। সারা জীবন যা দুঃস্বপ্ন হয়েই থেকে যাবে।

অল্পের জন্য ভয়াল পাইথনের গ্রাস থেকে বেঁচে গিয়েছেন তিনি! ততক্ষণে একটা হাত পুরো খেয়ে নিয়েছে সাপটা। ২৫ ফুট লম্বা বিশাল অজগরের হামলা। তার নাগপাশ থেকে কোনরকমে বেঁচে গিয়েছেন রবার্ট নাবাবান।

জানা যায়, রবার্ট নাবাবান একজন নিরপত্তারক্ষী। তাকে গিলে খেতে এসেছিল অজগরটা। সুমাত্রা দ্বীপের বাতান ঘাংসাল গ্রাম। সেখানেই অজগরের খপ্পরে পড়েছিলেন রবার্ট। বিশাল হাঁ করে রবার্টকে জড়িয়ে ধরেছিল সেই অজগর। নিজেকে ছড়ানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেন ওই ব্যক্তি। ততক্ষণে তার হাত গিলে নিতে শুরু করেছে অজগরটা। এরপর পুরো শরীরটাই হয়ত গিলে নিত! রবার্টের আর্তনাদে ছুটে আসে গ্রামবাসী। শুরু হয় অজগর-মানুষে টানাটানি। সেই সময় একটা হাত ছিঁড়ে অজগরের মুখেই রয়ে যায়। আর সবাই মিলে সাপটাকে পিটিয়ে মেরে ফেলে। বিশাল সেই সাপের ছবি ভাইরাল হয়েছে। যিনিই দেখছেন, তিনিই হতবাক হয়ে যাচ্ছেন।

কোন রকমে প্রাণে বেঁচে যাওয়া রবার্টের কাছে পুরো ঘটনা একটা দুঃস্বপ্ন। চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। কিন্তু ভয়ঙ্কর অজগরটার গিলে খেতে আসার মুহূর্ত তাকে তাড়া করবে আজীবন। খবর কলকাতা টুয়েন্টিফোর।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৫অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.