পাকুন্দিয়ায় বাল্যবিয়ের দায়ে বর-কনের বাবাকে জরিমানা

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
অক্টোবর ৫, ২০১৭ ৬:০৬ অপরাহ্ণ

নূরুল জান্নাত মান্না, পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় বাল্যবিয়ে দেয়ায় বর ও কনের বাবাকে ৫১ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। বরের বাবা উপজেলার এগারসিন্দুর ইউনিয়নের খামা গ্রামের মুনসুর আলীকে ৫০ হাজার এবং কনের বাবা পার্শ্ববর্তী বারাবর গ্রামের দুলাল মিয়াকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অন্নপূর্ণা দেবনাথ এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

জানা গেছে, বারাবর গ্রামের দুলাল মিয়ার মেয়ে তানজিনা আক্তার (১৫) মঠখোলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী। তানজিনার সাথে পার্শ্ববর্তী খামা গ্রামের মুনসুর আলীর কাতার প্রবাসী ছেলে মো. এমরাজ মিয়া (২৫)-র গত ২৫শে সেপ্টেম্বর নোটারী পাবলিক এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে হয়। পরে ৪ অক্টোবর বুধবার ভুরিভোজন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কনেকে শ্বশুরালয়ে পাঠানোর প্রস্তুতি নেন। এলাকাবাসী ও মঠখোলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামের মাধ্যমে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অন্নপূর্ণা দেবনাথ বিকালে কনের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বর-কনে ও বর-কনের বাবাকে আটক করেন।

সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বাল্যবিবাহ দেয়ার অপরাধে কনের বাবা দুলাল মিয়াকে এক হাজার টাকা ও বরের বাবা মুনসুর আলীকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন। এসময় কনের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত স্বামীর বাড়িতে না দেয়ার মুচলেকা নিয়ে এবং দণ্ডিত অর্থ পরিশোধ করার পর বর ও কনের বাবাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

Comments are closed.