চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে কিশোরগঞ্জ আসছেন রাষ্ট্রপতি

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ।। চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে আগামীকাল রবিবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জ আসছেন। রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের জন বিভাগ থেকে জেলা প্রশাসকের নিকট পাঠানো এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সফরের অংশ হিসেবে নিজ উপজেলা মিঠামইন ছাড়াও কিশোরগঞ্জ জেলা শহর,বাজিতপুর ও কটিয়াদী উপজেলায় সফর করবেন তিনি।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সফরসূচি থেকে জানা গেছে, চারদিনের সফরে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আনুমানিক ৩০জন সফরসঙ্গী থাকবেন। চার দিনের এই সফরে তিনি নিজ উপজেলা মিঠামইনের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক ডিগ্রি কলেজ পরির্দশন,বাজিতপুর কলেজের সুর্বণ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে যোগদান,কটিয়াদী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের হীরক জয়ন্তী অনুষ্ঠানে যোগদান ছাড়াও জেলা শহরের সার্কিট হাউসে একাধিক মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করবেন।এ ছাড়াও তিনি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ উদ্বোধন ও পরিদর্শন করবেন।

রাষ্ট্রপতির আগমন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। পুলিশসহ বিভিন্ন বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্হাগুলো ইতোমধ্যে কয়েক দফা বৈঠক শেষে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্হা গ্রহন করেছে। রাষ্ট্রপতির সফরের সম্ভাব্য যাতায়াতের রাস্তাগুলোতেও চলছে সংস্কারের কাজ। রাষ্ট্রপতির এই সফরকে ঘিরে জেলার সর্বত্র উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তাঁকে বরণ করে নিতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

চার দিনের সফরের শুরুতে রবিবার (৮ অক্টোবর) দুপুর ৩টায় হেলিকপ্টারযোগে নিজ উপজেলা মিঠামইনের হেলিপ্যাডে উপস্থিত হবেন তিনি। পরে জেলা পরিষদের নতুন ডাকবাংলোয় গার্ড অব অনার শেষে বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে জেলা পরিষদের আবদুল হামিদ মিলনায়তনে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময় করবেন। এরপর বিকেল ৪টা ৩০ মিনিটে মিঠামইন বাজারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ এবং সন্ধ্যার পর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক ডিগ্রি কলেজ পরিদর্শন করবেন। রাষ্ট্রপতি মিঠামইনের নিজ বাসভবনে রাত্রিযাপন শেষে সোমবার (৯ অক্টোবর) দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে বাজিতপুর উপজেলার সরারচর এয়ারপোর্টে অবতরণ করবেন। সেখান থেকে মোটরকেডযোগে বাজিতপুর কলেজ মাঠে উপস্হিত হয়ে গার্ড অব অনার শেষে দুপুর ২টা ১৫ মিনিটে শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ, মুক্তিযোদ্ধা চত্বর ও চারটি ব্রিজ উদ্বোধন করবেন। বিকেল ৪টা ৩০ মিনিটে বাজিতপুর কলেজের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হবেন। পরে বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে কিশোরগঞ্জ সদরে পৌঁছাবেন। কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজে গার্ড অব অনার শেষে সন্ধ্যা ৭টায় বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় করবেন। এরপর রাষ্ট্রপতি জেলা সদরের নিজ বাসভবনে রাত্রিযাপন শেষে পরদিন মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) দুপুর ১টায় সড়ক পথে কটিয়াদী উপজেলায় পৌঁছাবেন। কটিয়াদী কলেজ মাঠে গার্ড অব অনার শেষে দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নাম ফলক উদ্বোধন এবং বিকেল ৩টায় কটিয়াদী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭৫ বৎসর পূর্তিতে হীরক জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হবেন। রাষ্ট্রপতি বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিটে সড়ক পথে কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজে পৌঁছাবেন। সন্ধ্যা ৭টায় বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন, আইনজীবি সমিতির সদস্যবৃন্দ, প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ ও উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করবেন। এরপর রাষ্ট্রপতি জেলা সদরের নিজ বাসভবনে রাত্রিযাপন শেষে পরদিন বুধবার (১১ অক্টোবর) বিকেল ৫টায় কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্টেডিয়াম হেলিপ্যাড থেকে হেলিকপ্টারযোগে বঙ্গভবনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৭-১০-২০১৭ইং/ অর্থ

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ