আর্জেন্টিনা যেভাবে বিশ্বকাপে যেতে পারে!

স্পোর্টস রিপোর্ট : ম্যাচ শেষে মুখ ঢেকে মাঠে দাঁড়িয়ে আছেন লিওনেল মেসি। ছবিই বলছে কতটা হতাশ বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার।

শুধু মেসি নন, হতাশার কালো মেঘে ছেয়ে আছে গোটা আর্জেন্টিনার আকাশ। ১৯৭৮ ও ১৯৮৬ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলার বিষয়টি এখন কতটা সংশয়াচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে, আর্জেন্টিনার বার্সেলোনার তারকা ফুটবলারের ছবিই বলছে সে কথা।

‘ফুটবল মহাযজ্ঞ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আগামী বছর রাশিয়ায়। ল্যাটিন আমেরিকা থেকে সবার আগে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল। অথচ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ খেলা এখন অশ্চিয়তায় দোলায় দুলছে। রাশিয়ায় দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা খেলবে কি না, এখনো বলা যাচ্ছে না। অপেক্ষায় থাকতে হবে ইকুয়েডর ম্যাচ পর্যন্ত।

এমন পরিস্থিতির তৈরি হতো না, যদি মেসিরার বুয়েন্স আয়ার্সে গোলশূন্য ড্র না করত পেরুর সঙ্গে। এ ড্রয়েই না খেলার শঙ্কাটা আরও শক্ত ভিত পেয়েছে। পেরুর সঙ্গে ড্র করে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলে ৬ নম্বরে অবস্থান করছে আর্জেন্টিনা।

ল্যাটিন অঞ্চল থেকে সরাসরি চারটি দল বিশ্বকাপ খেলবে এবং পঞ্চম দল প্লে অফ খেলবে ওশেনিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। প্লে অফ খেলতে আর্জেন্টিনাকে অবশ্য পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নম্বরে থাকতে হবে। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে সরাসরি খেলবে ল্যাটিণ অঞ্চলের শীর্ষ চার দল।

৩৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে ব্রাজিল। ২৮ পয়েন্ট নিয়ে উরুগুয়ে, ২৬ পয়েন্ট নিয়ে চিলি ও ২৬ পয়েন্ট নিয়ে কলম্বিয়া শীর্ষ চারে অবস্থান করছে। ২৫ পয়েন্ট হলেও গোল পার্থক্যে পােঁচ অবস্থান পেরুর। ব্রাজিল ছাড়া বাকি তিন দলের সরাসরি খেলার সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখা দল উরুগুয়ে, কলম্বিয়া ও চিলি রয়েছে অপেক্ষাকৃত সুবিধাজনক অবস্থানে।

আর্জেন্টিনা এমন গ্যাড়াকলে পড়েছে নিজেদের ব্যর্থতায়। অবশ্য সুপ্ত একটি সম্ভাবনাও রয়েছে প্লে অফ খেলার। আবার সরাসরি খেলারও সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য অনেক গাণিতিক হিসাব করতে হবে এবং সমীকরণের মারপ্যাঁচ প্রয়োজন হবে। প্যারাগুয়ের কাছে ১-২ গোলে হেরেছে কলম্বিয়া। এই হারে পয়েন্ট টেবিলের তিনে নেমে গেছে রাদামেল ফ্যালকাও, জেমস রদ্রিগেজরা। জিতলে ব্রাজিলের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে ল্যাটিন অঞ্চল থেকে বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলত দলটি।

১০ অক্টোবর, মঙ্গলবার ইকুয়েডরের বিপক্ষে জীবনবাজির ম্যাচ আর্জেন্টিনার। মেসিরা খেলবেন ইকুয়েডরে। তাই কিছুটা চাপে থাকবেন মেসিরা। অবশ্য একটি সুবিধাও রয়েছে মেসিদের। কোপা আমেরিকা কাপ চ্যাম্পিয়ন চিলি ২-১ গোলে ইকুয়েডরকে হারিয়ে উঠে এসেছে পয়েন্ট টেবিলের তিনে।

তিনে থাকলে এখনো নিশ্চিত নয় অ্যালেক্সিস স্যাঞ্চেজদের বিশ্বকাপ। মঙ্গলবার দলটি সাও পাওলোতে মুখোমুখি হবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের। রয়েছে কলম্বিয়া-পেরু ম্যাচ। ব্রাজিল বাদে আজেন্টিনা, পেরু, উরুগুয়ে, চিলি ও কলম্বিয়ার রয়েছে বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা। এজন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৭অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ