সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্ট : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) রবিবার মূল্যসূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ দুই বাজারেই লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। আর ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কমেছে।

ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা যায়, আজ ডিএসইতে এক হাজার ৫৪ কোটি ২৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। যা আগের দিনের তুলনায় চার কোটি ২৪ লাখ টাকা কম। আগের দিন এ বাজারে এক হাজার ৫৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

দিনশেষে আজ ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬২০৫ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৫৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২২১৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৭টির, কমেছে ১৮১টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৫৪ কোটি ২৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৪২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৬২০২ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৩৪৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২২০১ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় এক হাজার ৫৮ কোটি ৪৯ লাখ ৬৩ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে চার কোটি ২৪ লাখ ৮৮ হাজার টাকা।

ডিএসইতে আজ লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো: ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেড, উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড, আমরা নেটওয়ার্ক লিমিটেড, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড, প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড, আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড এবং ইফাদ অটোস লিমিটেড।

অপরদিকে আজ চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৫০ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৯ হাজার ২৬৬ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫০টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮০টির, কমেছে ১৪০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টি কোম্পানির শেয়ার।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০৮অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ