সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে রোহিঙ্গা আটক ১৯

সাতক্ষীরা: অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় সাতক্ষীরার পদ্মশাখরা সীমান্ত থেকে নারী, পুরুষ ও শিশুসহ ১৯ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বিজিবি। এর মধ্যে ১০ জন শিশু, ৩ জন পুরুষ ও ৬ জন নারী রয়েছে। বুধবার সকালে সদর উপজেলার পদ্মশাখরা সীমান্ত থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটক রোহিঙ্গারা হলো, মরিয়ম বেগম, আসমা খাতুন, রাশিদা খাতুন, সুমাইয়া বেগম, গুলশান আরা খাতুন, জাইনুল কেগম, মো. আলাউদ্দিন, আজিজুর রহমান ও এনায়েত আলি। অবশিষ্ট ১০ জন শিশু, তাদের বয়স ৬ মাস থেকে ১২ বছরের মধ্যে।
বিজিবির পদ্মশাখরা বিওপি কমান্ডার সুবেদার মোশাররফ হোসেন জানান, ভারত থেকে অবৈধভাবে ১৯ রোহিঙ্গা পদ্মশাখরা সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সেখান থেকে ১৯ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়।
আটক রোহিঙ্গাদের বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, তারা সবাই ভারত থেকে বিএসএফএর সহায়তায় বাংলাদেশে এসেছেন। এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ সালে দুই দফায় তারা মিয়ানমার থেকে ভারতের দিল্লীতে যান। সেখানে তারা বসবাস করছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয় এবং খাদ্য বস্ত্র ও চিকিৎসা দিচ্ছে এই খবর পেয়ে তারা দিল্লী থেকে বাংলাদেশে চলে এসেছেন বলে জানিয়েছেন। তাদেরকে এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
সাতক্ষীরা ৩৮ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আরমান হোসেন জানান, আটক রোহিঙ্গাদের বিনা পাসপোর্টে বাংলাদেশে প্রবেশের অভিযোগে সদর থানায় সোপর্দ করা হবে।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.