ফের বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

অর্থনৈতিক রিপোর্ট : রাজধানীর বাজারে আবারও বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে এ নিত্য পণ্যটির দাম বেড়েছে কেজিতে ১৫ থেকে ২০ টাকা। এক কেজি পেঁয়াজ কিনতে ক্রেতাকে গুনতে হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। এ ছাড়া কাঁচা মরিচের দাম কিছুটা কমলেও এখনো বাড়তি দরে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার, খিলগাঁও, রামপুরা, মুগদাসহ বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

পেঁয়াজের দাম বাড়ার বিষয়ে ব্যবসায়ীরা বলেন, আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। এ খবরে দেশি পেঁয়াজের মজুদদাররা বাজারে বিক্রি কমিয়ে দিয়েছে। ফলে সরবরাহ কম থাকায় বাজারে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম বেড়েছে।

রাজধানীর খুচরা বাজারে আজ (বুধবার) প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজের বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ ও আমদানি পেঁয়াজের দাম ৫০-৫৫ টাকা। দুই সপ্তাহ আগে যেখানে দেশি পেঁয়াজ ৪৫ থেকে ৫০ টাকা এবং আমদানি পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হত।

এদিকে সরকারি সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসেবে এক মাসে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে গড়ে প্রায় ৪৭ শতাংশ। সংস্থাটির হিসেবে, এ সময়ে দেশি পেঁয়াজের দাম ৪২ শতাংশ এবং আমদানি করা পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ৫৩ শতাংশ। আর এক সপ্তাহে কেজিতে দেশি ও আমদানি পেঁয়াজ বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা।

সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী, সর্বশেষ ২৪ অক্টোবর (মঙ্গলবার) প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজের বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ ও আমদানি পেঁয়াজের দাম ৫৫-৬০ টাকা। এক মাস আগে দাম ছিল দেশি পেঁয়াজের ৪৫ থেকে ৫০ টাকা আর আমদানি পেঁয়াজের দাম ছিল ৩৫ থেকে ৪০ টাকা।

দাম বেশির কারণ জানতে চাইলে কারওয়ান বাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতা মো. হাবিব বলেন, ১০-১২ দিন ধরে বাজারে পেঁয়াজের দাম বেশি। ভারতে যখন পেঁয়াজের দাম বাড়ার খবর শুনি তখন দেশের বাজারে এমনেই দাম বেড়ে যায়। আজকে প্রতি পাল্লা (পাঁচ কেজি) দেশি পেঁয়াজ বিক্রি করছি ৩০০ টাকা থেকে ৩২০ টাকা। আর ভারতীয় পেঁয়াজ ২৫০ খেকে ২৭০ টাকা।

খুচরা বিক্রেতা শাহজাহান জানান, হঠাৎ করেই পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। দাম বাড়ানো ও কমানোর পিছনে আমাদের মত খুচরা ব্যবসায়ীদের কোনো কিছু করাই নেই। কারণ আমাদের বেশি দামে কিনা তাই বিক্রিও বেশি দামে করতে হয়। সপ্তাহ দুয়েক আগে ৪৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করেছি। এখন ঘাটে দেশি পেঁয়াজ কেনাই পরে ৬০ টাকার উপরে। ৬৫ থেকে ৭০ টাকা তো বিক্রি করতে হবেই।

মুগদা বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা কবির জানান, ‘এক কেজি পেঁয়াজ ৬০ টাকা বল্লাম দেবে না। একদাম ৬৫ টাকা। পেঁয়াজ ছাড়া তো চলে না, নিতেই হবে। পেঁয়াজের দাম বাড়ায় খরচ বেড়ে যাওয়ায় আমাদের সমস্যা হচ্ছে। এভাবে সব পণ্য বাড়তে থাকলে কিভাবে হবে?

এদিকে রাজধানীর কাঁচাবাজরগুলোতে কাঁচা মরিচের দাম কমেছে। তবে গত সপ্তাহের বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে অন্যান্য শাক-সবজি। শীতের সবজি বাজারে ভালোভাবে না আসা পর্যন্ত বাড়তি এ দাম কমবে না বলে মনে করছেন বিক্রেতারা।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২৫-অক্টোবর২০১৭ইং/নোমান

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ