কিশোরগঞ্জে পারিবারিক কলহের জেরে শিশুর পুরুষাঙ্গ কর্তন!

মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ।। কিশোরগঞ্জে ছোট শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে রাতের আধাঁরে ধারালো ব্লেড দিয়ে পৌনে দুই বছরের শিশুর পুরুষাঙ্গ কর্তন করেছে চাচা-চাচী। সোমবার রাতে জেলার কটিয়াদী ও বাজিতপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী খাসালা গজারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্মম এ ঘটনার শিকার নাজিজুল আমিন (২১ মাস) খাসালা গজারিয়া গ্রামের মো.হামিদ মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় শিশুটির চাচা সবুজ মিয়া (৩৫) ও চাচী রোকসানা বেগম (২৬) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার আসামিদের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবদেন করে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, ঘটনার তিন দিন পূর্বে থেকেই বাদী মো. হামিদ মিয়ার পুত্র নুরুল আমিন (৯) ও সবুজ মিয়ার পুত্র শাওনের (১১) মধ্যে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারে ক্ষোভ চলছিল। গত সোমবার রাতে হামিদ মিয়ার স্ত্রী আছমা বেগমের ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হলে সবুজ মিয়া ও রোকসানা আছমার ঘরে প্রবেশ করে ধারালো ব্লেড দিয়ে শিশু নাজিজুলের পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়। এসময় আছমা বেগম তাদের দেখে ফেলেন এবং শিশুটির কান্না শুনতে পান। ঘরে প্রবেশ করে তার শিশু সন্তানের পুরুষাঙ্গ কাটা দেখে চেচামেচি করলে তার স্বামী ও প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। পরে ঘটনাস্হল থেকে দ্রুত শিশুটিকে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে নিয়ে গেলে উন্নত চিকিত্‍সার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এ ঘটনায় শিশুর পিতা হামিদ মিয়া বাদী হয়ে সবুজ মিয়া ও রোকসানাকে আসামি করে বাজিতপুর থানায় মামলা রুজু করলে পুলিশ উভয়কে গ্রেফতার করে আলামত সংগ্রহ করে। বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক শাখাওয়াত হোসেন মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠকে জানান, আসামিদের গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো ও আলামত জব্দ করা হয়েছে।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/২৬-নভেম্বর২০১৭ইং/নোমান

Comments are closed.