আাজ আখাউড়া মুক্ত দিবস

সাইমুন আহমেদ রবিন, আাখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি।। ১৯৭১ সালের এই দিনে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের দেশের পূর্বাঞ্চলের প্রবেশদ্বার খ্যাত আখাউড়া পাকিস্তানি মিলিটারি বাহিনীর কবল থেকে মুক্ত হয়।

এই দিনে আখাউড়া সড়ক বাজারে বর্তমান পোস্ট অফিসের সামনে লাল সবুজ পতাকা উত্তোলন করে আখাউড়া মুক্ত ঘোষণা করে মুক্তিযোদ্ধারা।তাই এই জন্য০৬ ডিসেম্বরকে কেন্দ্র করে আজ এই দিনে নানা আয়োজনে আখাউড়া মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে।

স্মৃতি সৌধে পুস্পস্তবক অর্পন, আনন্দ র‌্যালী, জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযুদ্ধের পতাকা উত্তোলন এবং আলোচনার সভার মধ্য দিয়ে আখাউড়া মুক্ত দিবসটি উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে আজ বুধবার সকালে উপজেলা স্মৃতি সৌধে পুষ্প স্তবর্ক অর্পন করে উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, আওয়ামীলীগ, পৌর কর্তৃপক্ষ ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনসহ বিভিন্ন সংগঠন। পরে একটি আনন্দ র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীতে উপজেলা প্রশাসন, আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগি সংগঠন, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, শিক্ষক, ছাত্রছাত্রীসহ সর্বস্তরের  জনগণ অংশ নেয়।র‌্যালিটি পৌরশহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রধক্ষিণ করে সড়ক বাজারস্থ আখাউড়া ডাকঘর অফিসের সামনে এসে জমায়েত হয়। সেখানে অস্থায়ীভাবে নির্মিত মঞ্চে জাতীয় পতাকা, মুক্তিযুদ্ধের পতাকা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনের পতাকা উত্তোলন করা হয়। বাজানো হয় জাতীয় সঙ্গীত আমার সোনার বাংলা। আমি তোমায় ভালোবাসি।

পতাকা উত্তোলন শেষে আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনের আহবায়ক আনিছুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শামছুজ্জামান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আবু সাইয়িদ মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রফিকুল হক খাদেম (কানু), সৈয়দ জামসেদ শাহ্, আব্দুল হাই, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক অধ্যক্ষ মোঃ জয়নাল আবেদীন, ওসি (তদন্ত) আরিফুল আমিন প্রমুখ।

Comments are closed.