ছাতকে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ ,
ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ

আরিফুর রহমান মানিক, ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ।।  ছাতকে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ দিনটি বিশেষ আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালন করে। দিবসের প্রথম প্রহরে ছাতক কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে ও ভোরে সতের শিখা স্মৃতিসৌধে ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির শুভ সুচনা করা হয়। ভোরে সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মনিক, উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সতের শিখা স্মৃতিসৌধে পুস্পস্তবক অপর্ন করেন। দিবসের প্রথম প্রহরে ছাতক কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন করেন, পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরীর নেতৃত্বে ছাতক পৌরসভা, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক আবরু মিয়া তালুকদার ও কেন্দ্রিীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরীর নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ, ছাতক উপজেলা ও পৌর বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ। এছাড়া ছাতক ডিগ্রী কলেজ, ছাতক বহুমুখী মডেল হাইস্কুল, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ, হোমিওপ্যাথিক পরিষদ, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ, হিন্দু মহাজোট, পূজা উদযাপন পরিষদ, রেল শ্রমিকলীগ ও রেলকর্মকর্তা কর্মচারী, স্কুল ওয়াই, এনজিও প্রতিনিধিবৃন্দ, খাগহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ব্রিজ একাডেমি, আইডিয়াল একাডেমি, বু-বার্ড একাডেমিসহ রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সতের শিখা স্মৃতিসৌধে ও কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। সকালে মহসিন ফিল্ডে জাতিয় পতাকা উত্তোলন, শান্তির প্রতীক পায়রা অবমুক্ত করে উদ্বোধনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, মুহিবুর রহমান মানিক এমপি। পরে কুচকাওয়াজ, ডিসপে ও যেমন খুশি তেমন সাজো প্রদর্শন, পুরষ্কার বিতরণী ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খানের সভাপতিত্বে ও সমবায় কর্মকর্তা বিজিত রঞ্জন করের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত লাহিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌর কমান্ডার অজয় ঘোষ। বক্তব্য রাখেন, সাবেক কমান্ডার আব্দুস সামাদ, নুরুল আমিন, মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তাফা, আলকাছ আলী প্রমুখ। বিকেলে মহসিন ফিল্ডে পৌরসভা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় এক ফুটবল প্রীতি ম্যাচ। সন্ধ্যায় সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খানের সভাপতিত্বে ও সমবায় অফিসার বিজিত রঞ্জন করের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, মুহিবুর রহমান মানিক এমপি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, এসিল্যান্ড সোনিয়া সুলতানা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত লাহিন, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ কেএম বদরুল হক, সিনিয়র মৎস্য অফিসার ড. খালেদ কনক, অধ্যক্ষ মইন উদ্দিন আহমদ, আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আবরু মিয়া তালুকদার, সৈয়দ আহমদ, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান প্রমুখ। পরে উপজেলা পরিষদে স্থাপিত দুর্বীণশাহ মে অনুষ্ঠিত হয় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এদিকে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক আবরু মিয়া তালুকদারের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য আজমল হোসন সজলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা, ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, সাবেক কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগ সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন, পৌরসভার প্যানেল মেয়র তাপস চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা শাহীন চৌধুরী, কল্যাণব্রত দাস, এমাদুল হক সাদক আলী, নুর উদ্দিন, কৃষকলীগ নেতা বাবুল পাল, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা পংকজ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা ফজলে রাব্বী জনি, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুল বাছিত মামুন, সাধারন সম্পাদক সাদমান মাহমুদ সানি, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি জামায়েল আহমদ ফরহাদ, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াদ চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাদির তালুকদার প্রমুখ। এছাড়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান চৌধুরী খোকনের উদ্যোগে বর্ন্যাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে উপজেলা যুবলীগের বর্নাঢ্য আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়। দুপুরে শহরের কিবরিয়া সেন্টার সংলগ্ন মাঠে ১শ’ ফুট দীর্ঘ ও ৬০ ফুট প্রস্থ বিশাল জাতীয় পতাকাকে ঘিরে ছিল যুবলীগের আনুষ্ঠানিকতা। সাদা টি-শার্টে উপজেলা যুবলীগ লিখা জাতীয় পতাকা সম্বলিত সহ¯্রাধিক নেতা-কর্মী টি-শার্ট পরে বিশাল পতাকার চারপার্শ্বে দাঁড়িয়ে বিজয় দিবস উদযাপন করে। লম্বা মে র পেছনে ছিল বঙ্গবন্ধু-বালাদেশের মানচিত্র ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশালাকৃতির ছবি সংবলিত নয়নাভিরাম ডিসপ্লে। যা- এযাবতকালের বিজয় দিবস অনুষ্ঠান পালনের স্মরনীয় ঘটনা বলে নেতাকর্মিদের ধারণা। মে র পেছনের ডিসপ্লেতে শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের বিশেষ দিকগুলো শোভা পাচ্ছিল। নয়নাভিরাম ডিসপ্লে সমৃদ্ধ একটি বিশাল পতাকা ও ডিজিটাল পদ্ধতিতে মুক্তিযোদ্ধের প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। এসময় লাল-সবুজে জাতিয় পতাকার আদলে গেঞ্জি পরিহিত হাজারো ছাত্রলীগও যুবলীগের নেতাকর্মির একটি বিশাল বিজয় র‌্যালী শহরের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। এছাড়া মহান বিজয় দিবসে ছাতক প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেসক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রনির পরিচালনায় রোকেয়া ম্যানশন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি চান মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, অর্থ সম্পাদক আতিকুর রহমান মাহমুদ, ক্রিড়া সাংস্কৃতিকসমম্পাদক কামরুল হাসান সবুজ, সাংবাদিক, নাজমুল ইসলাম, মোশাহিদ আলী, সদরুল ইসলাম, মাহবুব আলম প্রমূখ। জামেয়া মুহাম্মদিয়া মুক্তিরগাঁও মাদরাসায় আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ৪৭নং আলমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিজয় দিবসের আলোচনা সভা, খেলা-ধুলা, আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ ছামির সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক মাওলানা সামছুল ইসলামের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক সভাপতি হানিফ আলী, শিক্ষিকা সৈয়দা ফাতেমা বেগম, মোহনারা বেগম, সুনাহর আলী, আব্দুল হেকিম, সালেহ আহমদ, নিয়ামত আলী, আসক আলী রানা প্রমূখ। আলহাজ্ব আয়াজ আলী উচ্চবিদ্যালয়ের সভাপতি আলহাজ্ব মখলিছুর রহমানের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়াহিদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক ইউপি চেয়ারমান আলহাজ্ব নিজাম উদ্দিন, সাবেক ব্যাংকার তৈয়ব আলী প্রমূখ। হাজি কমর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি কবির আহমদের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক এএইচএম কামালের পরিচালনায় বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় এলাকার গন্যমান্য লোকজন বক্তব্য রাখেন।

Comments are closed.