মা হারা সন্তানের কষ্ট : নুরুচ্ছালাম গালিব

সাহিত্য ও সংস্কৃতি ।। ফাহিম। মা-বাবার আদরের ছেলে। মা’র স্বপ্ন তাকে কোরঅানের হাফেজ বানাবে। সে কোরআনের ৬৬৬৬ আয়াত মুখস্থ করবে। আল্লাহ তাকে ৬৬৬৬ তালা উপরে রাখবে। কিন্তু মাত্র তিন বছর বয়সেই তার জীবনে নেমে আসল এক চরম অন্ধকার। তার মা চলে গেলেন পৃথিবী ছেরে। কিন্তু তার বাবা তার মায়ের স্বপ্ন ভুলেনি। ৫ বৎসর বয়সে তার বাবা তাকে নিকটতম হাফেজিয়া মাদ্রাসায় ভর্তি করে। মাদ্রাসা থেকে পড়তে লাগলো ফাহিম। প্রায় তিন ভাগের এক ভাগ মুখস্থ করলো। মাঝে মাঝে সে তার খালার বাড়িতেও যায়। কিন্তু মায়ের মতো আদর তো আর কোথাও পাওয়া যায়না। তবুও খালাকে দেখে হয়তো নিজেকে কিছুটা সান্তনা দিতে পারে। একদিন তার এক বন্ধু তার মা’কে নিয়ে একটি গালি দিল। যা তার মনের বেধনাকে আরও বারিয়ে দিল। তাই সে তার মায়ের কবরের কাছে গিয়ে কাদতেঁ লাগল। কিন্তু কতক্ষন? মা তো অার ফিরে আসবেনা। তাই সে কবর থেকে চলে আসে। এবং চলে যায় তার আপন মনে। বাড়িতে,মাদ্রাসাতে বা খালার বাড়িতে কোথাও যায়নি। অনেক খুঁজলো তার বাবা। কিন্তু কোথাও পেলনা। মায়ের বেদনায় মা’কে খুঁজতে চলে গেছে অনেক দূরে। মা না থাকার যে কি বেদনা তা শুধু তারাই বুঝে যাদের মা পৃথিবীতে বেঁচে নেই।

Comments are closed.