চিরিরবন্দরে এক গৃহবধূকে অমানসিক ভাবে নির্যাতন

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ চিরিরবন্দরে উপজেলা আউলিয়াপুকুর ইউনিয়নের উত্তর ভোলনাথপুর গ্রামের আফরশাহ পাড়ার দুই সন্তানের জননী কারিমা বেগমকে অমানসিক ভাবে নির্যাতন করেন পাষন্ড স্বামী।

দুই সন্তানের জননী কারিমা বেগমকে হাত-পা বেঁধে অমানসিক ও শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে স্বামী ও শাশুড়ী। কারিমা বেগম বাড়ীতে খড়ি না থাকায় তার স্বামীকে ধানের কাড়ির কাটা নাড়া আনতে বলে। কিন্তু তার স্বামী আনবে না বলায় কারিমা বলেন কি দিয়ে ভাত আন্ধিম। উত্তর ভোলনাথপুর গ্রামের আফরশাহ পাড়ার অহেদ আলীর ছেলে শাহজাহান আলী ও তার শাশুড়ী নুরজাহান আরা ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাত-পা বেধেঁ লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ী মারধর করেন। এবং শরীরে গলায় রশি বেধেঁ চালির খুঁটিতে বেঁধে রাখে। কারিমার চিৎকার শুনে এলাকাবাসী গৃহবধুর হাত-পা দঁড়ি বাঁধা রশি গুলো খুলে দেয়।

চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেন। প্রতিবেশীরা জানান, কারিমা পাষন্ড স্বামী শারীরিক ও অমানসিক ভাবে নির্যাতন করেন। গৃহবধুর ভাই ফারুক বলেন, চিরিরবন্দর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Comments

comments

You might also like More from author

Comments are closed.

মুক্তিযোদ্ধার কন্ঠ