শিশুশ্রম বন্ধ হবে কি?

বিশ্বজিৎ দাস বিজয়।। শাহাবাগ এলাকায় গাড়িতে গাড়িতে চিপস্ বিক্রি করে নিরব।বয়স নয় বছর। জীবিকার তাগিদে নিরবের মতো অসংখ্য শিশু আমাদের দেশে বিভিন্ন ধরনের শ্রমে নিয়োজিত। যে বয়সে তাদের বই-খাতা নিয়ে স্কুলে যাওয়ার কথা, সেই বয়সে তারা টাকা রোজগারের জন্য কাজ করছে।শিশু শ্রমিকের পরিমাণ দিন দিন বেড়েই চলেছে আমাদের দেশে। বর্তমানে শিশুরা প্লাস্টিক সামগ্রী তৈরির কারখানা, মোটরগাড়ি ও রিকশার গ্যারেজ, সাইকেল নির্মাণ কারখানা, ইটভাটা, চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন দোকান, হোটেল, রেস্তোরাঁ ও বাসাবাড়িতে কাজ করে জীবন-জীবিকার পথ খোঁজে।

এ ছাড়া অনেক শিশু বাস, টেম্পোতে যানবাহনে সাহায্যকারী হিসেবে কাজ করে। শিশুশ্রম বন্ধ করতে দরকার আইনি পদক্ষেপের যথাযথ ব্যবহার। শিশুশ্রম বন্ধে সবাইকে সচেতন হতে হবে।নইলে এই শিশুরাই জড়িয়ে পরবে নানা রকম অসামাজিক কর্মে।তাই এই শিশুদের পড়ালেখার সুযোগ করে দিতে হবে।স্কুলে যাওয়ার সুযোগ দিতে হবে।তাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষার দায়িত্ব নিতে হবে।নইলে শিশুশ্রম বন্ধ হবে না।

Comments are closed.